জাতীয়

সাঈদীর দ্বিতীয় দিনের রিভিউ শুনানি চলছে

ঢাকা,১৬ মে, (ডেইলি টাইমস ২৪):

মুক্তিযুদ্ধকালীন মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে আমৃত্যু কারাদণ্ড পাওয়া জামায়াত নেতা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর এবং একই মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের রিভিউ (পুনর্বিবেচনা) চেয়ে করা আবেদনের ওপর আপিল বিভাগে শুনানি দ্বিতীয় দিনের মতো আজ সোমবার শুরু হয়েছে।

আজ সোমবার সকাল থেকে শুনানি শুনছেন প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগের পাঁচ সদস্যের বেঞ্চ। সকাল সোয়া ৯টার দিকে রাষ্ট্রপক্ষ বক্তব্য উপস্থাপন করে। এর আগে গতকাল রবিবার শুনানি অসমাপ্ত থাকায় আজ সোমবার পুনরায় শুনানির জন্য দিন ধার্য করা হয়।

জামায়াতে ইসলামীর নায়েবে আমির সাঈদী আবেদন করেছেন সাজা থেকে খালাস চেয়ে। অন্যদিকে, রাষ্ট্রপক্ষ আবেদন করেছে সাঈদীর মৃত্যুদণ্ড চেয়ে। শুনানিতে আজ রাষ্ট্রপক্ষে বক্তব্য দিচ্ছেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। সাঈদীর পক্ষে বক্তব্য উপস্থাপন করবেন খন্দকার মাহবুব হোসেন। তাঁর সঙ্গে আছেন এস এম শাহজাহান ও তানভীর আল আমিন।

প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার নেতৃত্বে আপিল বিভাগের পাঁচ বিচারপতির বেঞ্চে গতকাল প্রথম দিন সাঈদীর করা আবেদনের ওপর শুনানি করেন তাঁর আইনজীবী অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন। তাঁর শুনানি শেষে রাষ্ট্রপক্ষের আবেদনের ওপর অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম শুনানি শুরু করেন। এ অবস্থায় আজ আবার শুনানির জন্য রাখা হয়েছে। এ আদালতের আজকের কার্যতালিকার ২ নম্বরে রয়েছে রাষ্ট্রপক্ষ ও সাঈদীর করা আলাদা দুটি রিভিউ আবেদন।

শুনানির একপর্যায়ে প্রধান বিচারপতি বলেন, “এ মামলায় আমরা সাক্ষ্য-প্রমাণসহ সামগ্রিক দিক বিবেচনা করে আমৃত্যু কারাদণ্ড দিয়েছি। এ রায় দেওয়ার আগে আমরা বিচারপতিরা পর্যালোচনা বৈঠক করেছি। এরপর সেখানে সিদ্ধান্ত হয়েছে। আপনারা দেখেছেন এ মামলায় দ্বিধাবিভক্ত রায় হয়েছে। আপিল বিভাগ শুনানির পর কাউকে সাজা দেয়। রিভিউয়ে সেটা পরিবর্তন খুবই রেয়ার (বিরল)। ”

গতকাল দুপুর ১২টায় শুনানির শুরুতেই রাষ্ট্রপক্ষে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম বক্তব্য উপস্থাপন করতে গেলে প্রধান বিচারপতি বলেন, “আপনি কেন?”  জবাবে অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, “আমি তো রিভিউ চেয়েছি। ” প্রধান বিচারপতি বলেন, “এটা মি. হোসেনের (খন্দকার মাহবুব হোসেন) বিষয়। তিনি তো খালাস চেয়েছেন। আপনি তো (অ্যাটর্নি জেনারেল) ফাঁসি চেয়েছেন। ” ওই সময় অ্যাটর্নি জেনারেল হ্যাঁ-সূচক জবাব দেন।

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button