খেলাধুলা

আইরিশদের চরম অব্যবস্থাপনায় ক্ষুব্ধ বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ড!

ঢাকা,১৫ মে, (ডেইলি টাইমস ২৪):

ম্যাচের আগে প্র্যাকটিস করবে টাইগাররা; মাঠে গিয়ে দেখা গেল উইকেটের অবস্থা যা তা! মোটেও প্র্যাকটিসের জন্য উপযোগী নয়। কিংবা ভিডিও ফুটেজ দেখে প্রতিপক্ষ দলের বোলার কিংবা ব্যাটসম্যানদের পারফর্মেন্স বিশ্লেষণ করে পৃথিবীর সব ক্রিকেট দল। আয়ারল্যান্ডে এটাও সম্ভব হয়নি! হবে কীভাবে? ড্রেসিংরুমে তো কোনো টেলিভিশনই নেই! আয়ারল্যান্ডে চলমান ত্রিদেশীয় সিরিজে এমন অনেক বিড়ম্বনায় পড়তে হচ্ছে বাংলাদেশ ও নিউজিল্যান্ড দলকে!

একপর্যায়ে ব্যালব্রিগান মাঠের অনুশীলনের অনুপযোগী উইকেট দেখে ব্যাটসম্যানদের নিয়ে যাওয়া হলো ইনডোরে। সেখানেও কোনো নেট বোলার নেই! আছে কেবল একটি বোলিং মেশিন। এসব তো কিছু নমুনা মাত্র; আরও বড় সমস্যা হলো, সমস্যার কথা বলার জন্য উপযুক্ত লোক পর্যন্ত নেই! মধ্যস্থতার জন্য একজন কর্মকর্তাকে নিয়োগ করেছে আইরিশ ক্রিকেট বোর্ড। কিন্তু সে বেচারা হলেন লেভেল-২ কোচ! আন্তর্জাতিক সফরের নিয়মকানুন সম্পর্কে কিছুই বোঝেন না তিনি! তাহলে সমস্যার সমাধান আসবে কীভাবে?

কোনো দেশে অন্য দল সফরে গেলে বোর্ডগুলোর মধ্যে সুযোগ-সুবিধা নিয়ে একটি চুক্তি হয় যাকে ‘এমওইউ’ বলে। ত্রিদেশীয় সিরিজের ক্ষেত্রেও সেটা হয়েছে। কিন্তু আইরিশরা মনে হয় তা বেমালুম ভুলে গেছে! এছাড়া খাবারের ক্ষেত্রে একটি আন্তর্জাতিক মান মেনে চলা হয়। এটা ক্রিকেট খেলুড়ে প্রতিটি দেশই মেনে চলে। আইরিশরা এই খাবারের তালিকা সম্পর্কে কোনো ধারণাই রাখে না! তাই সফরকারীদের কেবল ভাত আর মুরগির মাংস খেয়েই আপাতত দিন কাটাতে হচ্ছে! ক্রিকেটাররা মুখে কিছু না বললেও কোচিং স্টাফ তো রেগে আগুন। এদিকে নিউজিল্যান্ড তো রীতিমতো হুমকি দিয়েছে, এমন অব্যবস্থাপনার শিকার হলে তারা আর আয়ারল্যান্ড সফরে আসবেই না!

জিম্বাবুয়ের মত নানাবিধ সমস্যায় জর্জরিত দেশটিতে সফরে গিয়েও কোনো দলকে এমন বিড়ম্বনায় পড়তে হয়না। তবে, অনেকে বলছেন ক্রিকেটের নবীন সদস্য হওয়ায় আয়ারল্যান্ডে এমন সমস্যা হচ্ছে। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের নিয়মগুলোতে তারা এখনও অভ্যস্ত হয়ে উঠতে পারেনি। এসব ক্ষেত্রে সাধারণত অতিথিদের কাছে ভুল স্বীকার করে সৌজন্যতা দেখানোর একটা সুযোগ আছে; কিন্তু আইরিশ ক্রিকেট বোর্ডে এই কাজটা করারও কেউ নেই!

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button