বিনোদন

পার্টিতে মদের সঙ্গে নিষিদ্ধ মাদকও ছিল!

ঢাকা,১৫ মে, (ডেইলি টাইমস ২৪):

সম্প্রতি গাড়ি দুর্ঘটনায় মারা যান কলকাতার মডেল সনিকা সিং। দুর্ঘটনায় আহত হন অভিনেতা বিক্রম চট্টোপাধ্যায়। দুর্ঘটনার বিষয়টি নিয়ে এখন জোর তদন্ত চালাচ্ছে পুলিশ।

সনিকার মৃত্যু তদন্ত ক্রমশই অন্য দিকে মোড় নিচ্ছে। বিক্রম নিজেকে নির্দোষ প্রমাণ করার অনেক চেষ্টা করলেও বিভিন্ন জেরায় উঠছে নতুন নতুন প্রশ্ন।

দুর্ঘটনার দিনে শুধুই মদ খেয়ে ছিলেন বিক্রম? নাকি অন্য কোনো মাদকও গ্রহণ করেছিলেন! এমনই প্রশ্ন উঠেছে তদন্তে।

গত ২৯ এপ্রিল ভোরে দুর্ঘটনার পরেই রাসবিহারী অ্যাভিনিউয়ের উপরে উল্টে গিয়েছিল বিক্রমের গাড়ি। দুমড়ে-মুচড়ে যাওয়া গাড়ির ভেতর থেকে কোনোক্রমে সনিকা এবং বিক্রমকে উদ্ধার করেন স্থানীয় বাসিন্দারা।

গাড়ির সামনে চালকের বাঁ দিকের আসনে বসেছিলেন সনিকা। তার মৃত্যু হলেও বেঁচে যান বিক্রম।

এর পরে নিজেকে নির্দোষ প্রমাণ করতে বিক্রম বলেন, তিনি মদ্যপ ছিলেন না, তার গাড়িতে বেশি গতিও ছিল না। সিট বেল্টও বেঁধে রেখেছিলেন। এর পর তদন্ত যত এগিয়েছে তত বিক্রমের নতুন নতুন তথ্য ও বক্তব্য সন্দেহ তৈরি করেছে গোয়েন্দাদের মনে।

ওই দিন বেশ কয়েকটি পার্টিতে বিক্রম ও সনিকা উপস্থিত ছিলেন বলে জানা গিয়েছে। এখন গোয়েন্দারা জানতে পেরেছেন, ওই সব পার্টিতে শুধু মদ নয় অন্য রকম নেশার ব্যবস্থাও নাকি ছিল।

একটি পার্টিতে নিষিদ্ধ মাদক ছিল বলে কিছু প্রমাণও মিলেছে। এখন যাচাই করার পালা সেই সব মাদক কি বিক্রম নিজে গ্রহণ করেছিলেন! এই প্রশ্নের উত্তর পেতে পুলিশ আরও জেরা চালিয়ে যেতে চাইছে।

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button