রাজনীতি

প্রবৃদ্ধি নিয়ে বর্তমান সরকার চরম মিথ্যাচার করছে : রিজভী

ঢাকা,১৬ মে, (ডেইলি টাইমস ২৪):

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী আহমেদ বলেছেন, দেশের অর্থনীতির বারোটা বাজিয়ে প্রবৃদ্ধি নিয়ে বর্তমান সরকার চরম মিথ্যাচার করছে।

আজ সোমবার বিকেলে নয়াপল্টন কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলন থেকে তিনি এই মন্তব্য করেছেন।

রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, গতকাল (রবিবার) এনইসি বৈঠক পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে পরিকল্পনামন্ত্রী দাবি করেন বর্তমান অর্থবছরে প্রবৃদ্ধি হবে ৭ দশমিক ২৪ শতাংশ। অথচ গতকালই বিশ্ব ব্যাংক পূর্বাভাস দিয়েছে-বর্তমান অর্থবছরে প্রবৃদ্ধি হতে পারে সর্বোচ্চ ৬ দশমিক ৮ শতাংশ। গতকাল প্রকাশিত বিশ্ব ব্যাংকের ‘বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট আপডেট’ শীর্ষক প্রতিবেদনে আরও দাবি করা হয়েছে, চলতি বছরের তুলনায় আগামী বছরেও প্রবৃদ্ধি কমবে। যা হতে পারে ৬ দশমিক ৪ শতাংশ। বিশ্বব্যাংক বলেছে, বিনিয়োগ পরিবেশে অবনতি, প্রবাসী আয়ে বড় ধরনের পতন ও রফতানি আয়ের বৃদ্ধি মন্থর হয়ে আসায় এবার সার্বিক প্রবৃদ্ধি তুলনামূলক কম হবে। বাস্তবে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি বিশ্ব ব্যাংকের পূর্বাভাস থেকেও আরও কম।

তিনি আরো বলেছেন, ভোটারবিহীন সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকেই লুটপাটের মাধ্যমে আর্থিক খাতকে ধ্বংস করে দিয়েছে। রাষ্ট্রায়াত্ত্ব ব্যাংকগুলোর মূলধনও বর্তমান শাসকগোষ্ঠী খেয়ে ফেলেছে। আস্থার সংকটে বর্তমানে আর্থিক খাতে দেশি-বিদেশি বিনিয়োগ প্রায় শূণ্যের কোঠায়। প্রবাসীদের পাঠানো রেমিটেন্স এর পরিমাণ ক্রমান্বয়ে হ্রাস পাচ্ছে। অন্যদিকে, রফতানি আয়েরও দুরাবস্থা। বর্তমানে ভয়াবহ দুঃশাসনে বিনিয়োগবান্ধব পরিবেশ না থাকায় পোশাক রফতানি খাত অনিশ্চয়তার দিকে ধাবিত হচ্ছে। এরই মধ্যে লুটপাটের কয়েক লাখ কোটি টাকা পাচার হয়ে যাওয়ার খবরে বিনিয়োগকারীরা আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন। সুতরাং গতকাল সরকারের তরফ থেকে প্রবৃদ্ধি নিয়ে যে পরিসংখ্যান দেওয়া হয়েছে সেটি বর্তমান শাসকগোষ্ঠীর মিথ্যাচারেরই একটি অংশ।

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button