লিড নিউজ

সন্ত্রাসবাদীদের পৃথিবী ছাড়া করুন: ডোনাল্ড ট্রাম্প

জঙ্গি ও সন্ত্রাসবাদবিরোধী লড়াইয়ের নেতৃত্বে আসার জন্য মুসলিম দেশগুলোকে আহবান জানিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, জঙ্গি ও সন্ত্রাসবাদীদের পৃথিবী ছাড়া করুন।

২১ মে রোববার আরব ইসলামিক আমেরিকান (এআইএ) সম্মেলনে যোগ দিয়ে ট্রাম্প এ কথা বলেন।

ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের সন্ত্রাসবিরোধী লড়াই ইসলামের বিরুদ্ধে লড়াই নয়। এ লড়াই শুভ ও অশুভের মধ্যে।

সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের যুদ্ধ নিয়ে ট্রাম্প বলেন, এই যুদ্ধ বিভিন্ন ধর্মের, বিভিন্ন গোষ্ঠীর বা বিভিন্ন সভ্যতার নয়। এই লড়াই সেই সব নৃশংস অপরাধীদের বিরুদ্ধে যারা মানুষের জীবন কেড়ে নিতে চায়, সব ধর্মের ভালো মানুষ যারা জীবন রক্ষা করতে চায়, তাদের হত্যা করতে চায় এসব অপরাধী। এ লড়াই ভালো ও মন্দের।

ট্রাম্প আরও বলেন, এর মানে হচ্ছে সত্যিকার অর্থে ইসলামি জঙ্গিবাদ ও ইসলামি সন্ত্রাসবাদের মোকাবিলা করা। এর মানে হচ্ছে নিরাপরাধ মুসলিমদের হত্যা, নারীদের ওপর নিপীড়ন, ইহুদিদের হত্যা ও খ্রিস্টানদের গলাকেটে হত্যার বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হওয়া।

ইসলাম ধর্মকে ‘বিশ্বের এক মহান বিশ্বাস’ হিসেবে উল্লেখ করে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বলেন, বিশ্বজুড়ে সন্ত্রাসবাদ ছড়িয়ে পড়েছে; কিন্তু শান্তির পথ এখানেই রয়েছে, এই প্রাচীন ও পবিত্র মাটিতে।

জঙ্গিবাদবিরোধী লড়াইয়ে ঐক্যের গুরুত্ব তুলে ধরে ট্রাম্প বলেন, আমরা অশুভকে পরাজিত করতে পারব যদি সব মহৎ শক্তি ঐক্যবদ্ধ ও শক্তিশালী থাকি। এই কক্ষে উপস্থিত সবাই যদি এই বোঝার ভাগ সমানভাবে বহন করি।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ ৫৫টি মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশের সরকারপ্রধান ও তাদের প্রতিনিধিরা এ সম্মেলনে যোগ দেন। এদের মধ্যে ছিলেন লেবাননের প্রধানমন্ত্রী সাদ হারিরি, মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাক, লিবিয়ার প্রধানমন্ত্রী ফায়েজ আল সাররাজ, ইয়েমেনের প্রেসিডেন্ট আবেদ রাব্বো মানসুর হাদি, মৌরিতানিয়ার প্রেসিডেন্ট মোহামেদ ওলদ আবদেল আজিজ, সোমালিয়ার প্রেসিডেন্ট মোহামেদ আবদুল্লাহি মোহামেদ, গায়ানার প্রেসিডেন্ট ডেভিড গ্র্যাঙ্গার, ইরাকের প্রেসিডেন্ট ফুয়াদ মাসুম, ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট জোকো উইডোডো, সিয়েরা লিওনের প্রেসিডেন্ট আর্নেস্ট বাই করোমা, তিউনিশিয়ার প্রেসিডেন্ট বাজি সাইদ আসসাবসি, গাম্বিয়ার প্রেসিডেন্ট আদামা বারো, গ্যাবনের প্রেসিডেন্ট আলি বাঙ্গো ওনদিম্বা, মালদ্বীপের প্রেসিডেন্ট আবদুল্লা ইয়ামিন, জিবুতির প্রেসিডেন্ট ইসমাইল ওমর গুল্লেহ, ব্রুনেইয়ের সুলতান হাসান আল বলকিয়াহ, তাজিকিস্তানের প্রেসিডেন্ট এমোমালি রাহমোন, পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ, আফগানিস্তানের প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘানি, তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত কাভুসোগলু, ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস, কাজাখস্তানের প্রেসিডেন্ট নুরসুুলতান নজরবায়েভ ও মিসরের প্রেসিডেন্ট আবদেল ফাত্তাহ আল-সিসি।

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button