জেলার সংবাদ

খালিয়াজুরীতে আবারও চালু হলো ওএমএস’র চাল বিক্রি

ঢাকা, ০২ জুন, (ডেইলি টাইমস ২৪):

খাদ্য অধিদপ্তরের ওএমএস (ওপেন মার্কেট সেল) কার্যক্রমের চাল বিক্রির স্থগিতাদেশ বাতিল করায় অকাল বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হাওরদ্বীপ খালিয়াজুরীতে আজ শুক্রবার থেকে আবারও ওই চাল বিক্রি শুরু হয়েছে।
জানা গেছে, ভারি বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলে সৃষ্ট অকাল বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত নেত্রকোনার খালিয়াজুরীতে খাদ্য অধিদপ্তর গত এপ্রিল মাস থেকে ওএমএস কার্যক্রমের আওতায় ৭ জন ডিলারের মাধ্যমে খোলাবাজারে চাল বিক্রি শুরু করে। কিন্তু মাত্র দেড় মাসের মাথায় খাদ্য বিভাগের ‘সরবরাহ বণ্টন ও বিপণন বিভাগ’ এর উপ-পরিচালক এম এ সাঈদ স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে বৃহস্পতিবার (১জুন) থেকে ওএমএস কার্যক্রম স্থগিত রাখার নির্দেশ দেয়া হয়। এ কারণে বন্যা উপদ্রুত এলাকায় খাদ্য সংকটের আশঙ্কা দেখা দেয়। এ নিয়ে বৃহস্পতিবার দৈনিক ইত্তেফাকসহ একাধিক পত্রিকায় রিপোর্ট প্রকাশিত হয়। এছাড়া স্থানীয় প্রশাসনও ওএমএস কার্যক্রম চালু রাখার তাগিদ দিয়ে খাদ্য অধিদপ্তরে যোগাযোগ করেন। এর প্রেক্ষিতে খাদ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক বদরুল আলম স্বাক্ষরিত অপর এক চিঠিতে স্থগিতের আদেশটি বাতিল করেন।
নেত্রকোনা জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক সোহরাব হোসেন জানান, বৃহস্পতিবার সকালে মহাপরিচালকের আদেশটি তার কাছে পৌঁছেছে। তিনি আরও জানান, স্থগিতের আদেশ বাতিল হওয়ায় বৃহস্পতিবার ডিলারদের কাছ থেকে আবার চালান গ্রহণ করা হয়েছে। একদিন বন্ধ রাখার পর আজ শুক্রবার থেকে খালিয়াজুরীর ৭টি কেন্দ্রে যথারীতি আবার ওএমএসের চাল বিক্রি শুরু হয়েছে।
উল্লেখ্য, ওএমএস কার্যক্রমের আওতায় একজন ডিলার ১৫ টাকা কেজি দরে দৈনিক এক মেট্রিক টন চাল বিক্রি করতে পারেন। প্রত্যেক ডিলারের কাছ থেকে প্রতিদিন অন্তত ২শ জন সর্বোচ্চ পাঁচ কেজি করে চাল কেনার সুযোগ পান। তবে ডিলাররা জানান, এলাকায় আগ্রহী ক্রেতার সংখ্যা আরও অনেক বেশি। বরাদ্দ কম থাকায় অনেকে লাইনে দাঁড়িয়েও চাল কিনতে পারছেন না।
Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button