বিনোদন

ঢাকা অ্যাটাকের নওশাবা

ঢাকা, ০৩ জুন, (ডেইলি টাইমস ২৪):

কাজী নওশাবা আহমেদ। খুব অল্প অল্প করে কাজ করেন এবং প্রতিটি কাজে পরিশীলিত ভাবে করেন। কিছুদিন আগেই মুক্তি পেয়েছে চলচ্চিত্র ‘ভূবন মাঝি। ‘ ছবিটি যেমন প্রশংসিত হয়েছে, হয়েছেন নওশাবাও। এখনো হাতে ৫টি ছবি রয়েছে। ‘ঢাকা ড্রিমস’, ‘ঢাকা অ্যাটাক’, ‘চন্দ্রাবতী’, ‘স্বপ্নবাড়ি’ ও ‘নাইন্টি নাইন ম্যানশন। ‘ পুলিশ পরিবারের প্রযোজনায় নির্মিত ‘ঢাকা অ্যাটাক’ নিয়ে আলোচনার কমতি নেই। ছবিটি পরিচালনা করেছেন দীপংকর দীপন। ‘নাইন্টি নাইন ম্যানশন’, ‘চন্দ্রাবতী ছবির। ‘

ঢাকা অ্যাটাক ছবিতে এবিএম সুমনের স্ত্রী হিসেবে অভিনয় করেছেন নওশাবা। সুমন বোম্ব ডিসপোজাল গ্রপের সদস্য। একটি রোমহর্ষক ঘটনার অন্যতম অংশীদার ও দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নওশাবার স্বামী।

নওশাবা কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘আসলে আমার লাইফটা পুরো স্যাক্রিফাইসিং লাইফ। পুলিশের একজন বোম্ব ডিসপোজাল স্পেশালিস্ট। যাকে সবসময় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কাজ করতে হয়। আর আমাকেও হাসিমুখে তাকে প্রতিবার বিদায় দিতে হয়। অন্যদের মতো আবেগকে আমি প্রশ্রয় দেইনা। কেননা আমার স্বামী দেশের জন্য জীবনের ঝুঁকি নিচ্ছে, দেশের প্রতি আমারও ভালোবাসা রয়েছে। ‘

নওশাবা বলেন, ছবিতে আমি অন্তঃসত্বা থাকি, ‘আমার সাথে একজন কাজের মেয়ে ছাড়া কেউ নেই। তারপরেও আমি কখনো ওকে বলি নি আজ ডিউটিতে যেও না। আমাকে অনেক ত্যাগ স্বীকার করতে হবে। অবশ্য ঘটনায় আরো টুইস্ট রয়েছে সেটার জন্য অপেক্ষা করতে হবে। ‘

নওশাবা সম্প্রতি ছোট পর্দার জন্য আবুল হোসেনের কবিতা অবলম্বনে ‘যে তুমি হরণ করো’ নাটকে অভিনয় করলেন। মাহমুদ দিদারের সাথে এটাই তার প্রথম কাজ। আয়নাবাজি অরিজিনাল সিরিজে গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে কাজ করলেন। সেটা প্রচারের অপেক্ষায়। এনটিভির কণ্ঠতারকা নামের একটি অনুষ্ঠানে হোস্ট হিসেবে কাজ করেছেন। যেখানে গেস্ট হিসেবে ছিলেন, মাজহারুল ইসলাম, জাফরুল্লাহ শারাফাত ও সুমনা হক।

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button