খেলাধুলা

লাভ হলো না দোলেশ্বরের চ্যাম্পয়িন গাজী গ্রুপ

গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্সকে ছয় উইকেটের বড় ব্যবধানে হারিয়ে সুপার লিগের শেষ করেছে প্রাইম দোলেশ্বর স্পোর্টিং ক্লাব। জয় পেয়েও সুবিধা করতে পারেনি প্রাইম দোলেশ্বর। একদিন আগেই নির্ধারণ হয়ে গেছে শিরোপা জয়ী দলের নাম। শেষ হাসি হেসেছে গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্সই।

সোমাবার সুপার লিগের শেষ রাউন্ডের ম্যাচে বিকেএসপির তিন নম্বর মাঠে প্রাইম দোলেশ্বরের মুখোমুখি হয়েছিল গাজী গ্রুপ। ম্যাচটি মাঠে গড়ালেও বৃষ্টির হানায় ৩৩ ওভারের বেশি খেলা হয়নি। ম্যাচটি সেদিন শেষ না হলেও চ্যাম্পিয়ন দল নির্ধারণে সমস্যা হয়নি। এই পথে অবশ্য শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবকে ডাকওয়ার্থ লুইস পদ্ধতিতে ছয় উইকেটে হারিয়ে হিসাবটা সহজ করে দেয় গেল আসরের চ্যাম্পিয়ন আবাহনী লিমিটেড। ফলে ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগের শিরোপা উঠে গাজী গ্রুপের হাতে।

গতকাল বিকেএসপির তিন নম্বর মাঠে প্রাইম দোলেশ্বরের বিপক্ষে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ৩৩ ওভারে পাঁচ উইকেটে ১৪২ রান তোলে গাজী। এরপর বৃষ্টি বাধায় সেদিন আর মাঠে গড়ায়নি। মুমিনুল হক ৩৮ ও নাদিফ চৌধুরী ৩৮ করে ফিরে গেলেও জহুরুল ইসলাম অমি ৫০ রান করে অপরাজিত থাকেন। পরে মঙ্গলবার স্কোর কার্ডে ৮০ রান যোগ করতেই বাকি পাঁচ উইকেট হারায় গাজী গ্রুপ। পাঁচ বল বাকি থাকতেই ২২২ রানে গুটিয়ে যায় নাসির হোসেনের দল। ইনিংস সর্বোচ্চ ৮৭ রান আসে অমির ব্যাট থেকে। এ ছাড়া সোহরাওয়ার্দী শুভ করেন ১৫ রান।

দোলেশ্বরের পক্ষে সর্বোচ্চ তিনটি উইকেট নেন ফরহাদ রেজা। দু’টি করে উইকেট নিয়েছেন দেলোয়ার হোসেন, আরাফাত সানি ও শরিফুল্লাহ।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে পুনিত বিষৎ ও শরিফুল্লাহর অপরাজিত জোড়া হাফ সেঞ্চুরিতে ৩৩ বল ও ছয় উইকেট হাতে রেখেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় দোলেশ্বর। ৮৯ রান করে অপরাজিত থাকেন দোলেশ্বরের ভারতীয় উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান পুনিত। শরিফুল্লাহ অপরাজিত থাকেন ৫১ রানে। পঞ্চম উইকেট জুটিতে দু’জন মিলে যোগ করেছেন অবিচ্ছিন ১১৯ রান। এ ছাড়া মার্শাল আউয়ুব ৩৯, আব্দুল মজিদ ২০ এবং শাহরিয়ার নাফিস করেছেন ১৩ রান।

গাজী গ্রুপের পক্ষে একটি করে উইকেট নিয়েছেন হোসেন আলী, মেহেদী হাসান, আবরার কাজী ও মুমিনুল হক।

১৬ ম্যাচে ১২ জয়ে আবাহনীর মোট পয়েন্ট ২৪। এক ম্যাচ কম খেলেও ঝুলিতে সমান ২৪ পয়েন্ট জমা করে গাজী গ্রুপ। গাজীর বিপক্ষে জয় পেয়ে দোলেশ্বরের পয়েন্ট দাঁড়িয়েছে ২৪। কিন্তু হেড টু হেডের হিসেবে এই তিন দলের মধ্যে এগিয়ে গাজী গ্রুপ। এর আগের সাক্ষাতে আবাহনীর বিপক্ষে দুই ম্যাচেই জিতেছে গাজী। অন্যদিকে, দোলেশ্বরের বিপক্ষেও একটি ম্যাচ জিতেছে নাসির হোসেনের দল গাজী গ্রুপ। যে কারণে সুপার লিগের শেষ রাউন্ডে দোলেশ্বর জিতলেও চ্যাম্পিয়ন হয়েছে গাজী গ্রুপ।

নাম পরিবর্তনের পর প্রথমবারের মতো প্রিমিয়ার লিগের শিরোপা জিতল গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স। এর আগে গাজী ট্যাঙ্ক ক্রিকেটার্স নামে ২০১৩-১৪ মৌসুমে শিরোপা জিতেছিল এই দলটিই। অন্যদিকে, প্রথমবারের মতো প্রিমিয়ার লিগের কোনো দলের নেতৃত্বে থেকে শিরোপা জিতলেন অলরাউন্ডার নাসির হোসেন।

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button