জাতীয়প্রধান সংবাদ

এমন বাজেট পাস করা হবে না- যাতে মানুষ কষ্ট পায় : বাণিজ্যমন্ত্রী

ঢাকা, ১৮ জুন, (ডেইলি টাইমস ২৪):

বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, এমন বাজেট পাস করা হবে না, যাতে দেশের মানুষ কষ্ট পায়।

তিনি বলেন, বাজেট পাস করার পর সবাই খুশি হবে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বর্তমান সরকার দেশের মানুষের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছে। দেশের মানুষের কল্যাণে সরকার সবকিছু করবে।
তোফায়েল আহমেদ আজ রোববার রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউট বাংলাদেশে থ্রি-ডি সেমিনার হলে বাংলাদেশ কৃষি অর্থনীতিবিদ সমিতি আয়োজিত বাজেট উত্তর সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ সব কথা বলেন।

বাংলাদেশ কৃষি অর্থনীতিবিদ সমিতির সভাপতি এবং পরিকল্পনা কমিশনের সদস্য প্রফেসর ড. শামসুল আলমের সভাপতিত্বে সেমিনারে মূলপ্রবন্ধ উপস্থাপন করেন শেরে-বাংলা কৃষি বিশ^বিদ্যালয়ের ডেভেলপমেন্ট এন্ড প্রোভার্টি স্টাডিজ বিভাগের প্রফেসর ড. মোহাম্মদ মিজানুর রহমান কাজল।

এছাড়াও অনুষ্ঠানে অর্থ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ড. আব্দুর রাজ্জাক, কৃষি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য আব্দুল মান্নান প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ভ্যাট ও ট্যাক্স নিয়ে জাতীয় সংসদে এবং বাইরে আলোচনা হচ্ছে। বাজেট পাস হবার পর আর কোন আলোচনা থাকবে না। ভ্যাট এবং ট্যাক্স সহনীয় পর্যায়ে বাস্তব সম্মত হবে।

তোফায়েল আহমেদ বলেন, চাউলের মূল্য বৃদ্ধি এটি একটি কৃত্রিম সাময়িক সংকট। বাজারে চাউলের অভাব †নই। দেশে পর্যাপ্ত চাউল রয়েছে। পরিস্থিতি মোকাবেলায় সরকার আড়াই লাখ মেট্রিক টন চাউল আমদানির সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আরো ৬ লাখ মেট্রিক টন চাউল আমদানির টেন্ডার আহবান করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, চাউল আমদানির উপর ১০ ভাগ হারে আমদানি শুল্ক ছিল, দেশের কৃষকদের সুরক্ষার জন্য আরো ১৫ ভাগ শুল্প আরোপ করা হয়েছে, যাতে দেশের কৃষকরা ফসলের ন্যায্য মূল্য পান। অল্প সময়ের মধ্যেই এ সমস্যার সমাধান হবে। একসময় দেশের সাড়ে সাত কোটি মানুষের খাদ্যের অভাব ছিল, আজ দেশের ১৬ কোটি মানুষের খাদ্যের অভাব নেই।

তোফায়েল আহমেদ বলেন, আমরা চাউল রপ্তানি করতে শুরু করেছি। দেশে আবাদযোগ্য জমির পরিমান দিন দিন কমছে কিন্তু খাদ্য উৎপাদন বাড়ছে। এ উৎপাদন আরো বৃদ্ধি করা সম্ভব। ভবিষ্যতেও দেশে কোন খাদ্য সংকট হবে না।

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button