মুক্তমত

রিজভীর প্রতিক্রিয়া নিয়ে মোহাম্মদ এ আরাফাতের প্রশ্ন

ঢাকা, ২১ জুন, (ডেইলি টাইমস ২৪):

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের উপর হামলার ঘটনায় দলটির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর প্রতিক্রিয়ার প্রেক্ষিতে তার উদ্দেশে কয়েকটি প্রশ্ন রেখেছেন সুচিন্তা ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মোহাম্মদ এ. আরাফাত। আজ মঙ্গলবার তিনি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নিজের আইডি থেকে রুহুল কবির রিজভীর উদ্দেশে এই প্রশ্নগুলো রাখেন।

ফেসবুকে আরাফাত লিখেছেন, ‘রুহুল কবির রিজভী বললেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশেই নাকি হাসান মাহমুদের লোকেরা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের উপর হামলা করেছিল। রুহুল কবির রিজভী’র মতে এই হামলাটি ছিল একটি মানবতাবিরোধী অপরাধ এবং তারা ক্ষমতায় এসে এই সকল মানবতাবিরোধী অপরাধের বিচার করবেন এবং কড়া শাস্তি দিবেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে এত বড় মিথ্যা বলার পরেও, একটি ‘হামলাকে’ মনবতাবিরেধী অপরাধের সাথে তুলনা করার পরেও এবং ‘বিচার’ ও ‘শাস্তি’র নামে প্রতিশোধ পরায়ন মানসিকতা দেখানোর পরেও, অতি পন্ডিত-অতি বোদ্ধা সুশীল সমাজের মুখে একটি কথাও ফুটবে না। ‘

আরাফত লেখেন, ‘রুহুল কবির রিজভী কে প্রশ্ন করতে চাই, আপনারা ক্ষমতায় থাকাকালীন (মুফতি হান্নানের সাক্ষ্য মতে) হাওয়া ভবনের পরিকল্পনায় শেখ হাসিনার উপর যে গ্রেনেড হামলা হয় যা অসংখ্য প্রাণ কেড়ে নেওয়া, সেটি কী ধরনের অপরাধ ছিল? এ বর্বরোচিত হামলায় সাবেক রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমানের স্ত্রী আওয়ামী লীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক আইভি রহমানসহ দলের ২২ জন নেতা-কর্মী নিহত এবং শ’ শ’ নেতা-কর্মী আহত হন। এই মামলার অন্যতম পলাকতক আসামিদের মধ্যে মাওলানা তাজউদ্দিন বিএনপির সাবেক উপমন্ত্রী আবদুস সালাম পিন্টুর আপন ভাই। অথচ, গ্রেনেড হামলা পরবর্তি সময়ে ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত তো দূরের কথা, জজ মিয়া নাটক করে ঘটনাকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার জন্য খালেদা জিয়ার কী শাস্তি হওয়া উচিত?’

বিএনপির শাসনামলের কথা স্মরণ করিয়ে দিয়ে মোহাম্মদ এ. আরাফাত লেখেন, ‘বিএনপি-জামায়াত আমলে গাজীপুরের সংসদ সদস্য ও আওয়ামী লীগ নেতা আহসান উল্লাহ মাস্টার হত্যা, নারায়ণগঞ্জে শামীম ওসমান ও সিলেটে সুরঞ্জিত সেন গুপ্তের ওপর বোমা ও গ্রেনেড হামলা, শাহ এ এম এস কিবরিয়াসহ আরো যত হামলা এবং হত্যকাণ্ড হয়েছিল তার জন্য আপনাদের কী বিচার ও শাস্তি হওয়া উচিত? মেজর মান্নানের সানক্রেস্ট কোলা ও বাবল আপ ফ্যাক্টরি জালিয়ে দেওয়া, মাহির উপর হামলা, মাহির সন্তানদের গাড়িতে বোমা হামলা, বি চৌধুরির বাড়িতে আগুন লাগানো এবং শেষ পর্যন্ত বি চৌধুরির উপর বর্বরোচিত যে হামলা করেছিলেন আপনাদের সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে সেটা কী ধরনের অপরাধ ছিল?’

সবশেষে আরাফাত লেখেন, ‘ফখরুল ইসলাম আলমগীরের উপর যে হামলা হয়েছে তার সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচার আমিও চাই। এই ধরনের হামলা গণতন্ত্রের জন্য অশুভ। এখানে বিএনপি নিজে জড়িত থাকলেও তা বের হওয়া দরকার আর আওয়ামী লীগের কেউ জড়িত থাকলে তার/ তাদের দ্বিগুণ শাস্তি হওয়া উচিত। আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার সাথে সাথে সাংগঠনিক ব্যবস্থাও নেওয়া উচিত। কারণ যারাই এ ঘটনা ঘটিয়েছে তারা সরকার বা দলের কোনো উপকার তো করেনিই বরং অপকার করেছে। ‘

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button