জেলার সংবাদ

‘শোলাকিয়ার ঐতিহ্য ও সুনাম বিশ্ব মুসলিমের সম্মানের অংশ’

ঢাকা, ২৪ জুন, (ডেইলি টাইমস ২৪):

গত বছর জঙ্গি হামলার চরম উত্তেজনা ও আতঙ্কের মধ্যে শান্তিপূর্ণভাবে দেশের সর্ব বৃহৎ ঐতিহাসিক শোলাকিয়া ঈদগাহের নামাজের ইমামতি করেছিলেন তিনি। লাখো মুসল্লিকে বলেছিলেন ইসলামের শান্তির মতাদর্শ সম্পর্কে।

এ বছরের ১৯০তম ঈদ জামাতের প্রাক্কালে শান্তির ডাক দিলেন তিনি। বললেন, ‘ইসলামে সন্ত্রাস, নৈরাজ্যবাদ, জঙ্গিবাদের অস্তিত্ব নেই। শান্তি, কল্যাণ, সৌহার্দ্য ছাড়া অন্য কোনো কিছু ইসলাম কখনোই মেনে নেয় না। ‘শোলাকিয়ার ইমাম মওলানা শোয়াইব বিন আবদুর রউফ বলেন, ‘ইসলামের শান্তিবাদী, কল্যাণকামী ভাবাদর্শ তুলে ধরা প্রতিটি মুসলমানের নৈতিক দায়িত্ব। এই দায়িত্ব পালনে মোটেও পিছ পা হওয়া যাবে না। শত বিরূপতার মাঝেও ইসলামের প্রকৃত বাণী প্রচার করার কাজে আমাদেরকে তৎপর হতে হবে। তাহলেই বিপথগামীরা ভুল বুঝতে পারবে। ‘

শনিবার (২৪ জুন) সকালে এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ‘শোলাকিয়ার ঐতিহ্য ও সুনাম কেবল কিশোরগঞ্জের বিষয় নয়, সারা দেশ ও বিশ্ব মুসলিমের সম্মানের অংশ। ইসলামের এই ঐতিহ্যকে সমুন্নত রাখা আমাদের সকলেরই দায়িত্ব। ‘

তিনি বলেন, ‘সরকার ও স্থানীয় প্রশাসন সুষ্ঠুভাবে ঈদ জামাত সম্পন্ন করার যথাযথ প্রস্তুতি নিয়েছে। সবাই আনন্দ ও উৎসবের মধ্য দিয়ে জামাতে অংশ নিয়ে ইসলামের শান্তির বাণীকে উচ্চকিত করবেন। ‘

স্থানীয় জামিয়া ইমদাদিয়ার শিক্ষক ও শহরের বড়বাজার মসজিদের ইমাম মওলানা শোয়াইবের বাড়ি সদর উপজেলার মারিয়া ইউনিয়নে। দেশবিদেশে উচ্চশিক্ষা গ্রহণকারী এই ইমাম শোলাকিয়া ঈদগাহে বয়ান বা আলোচনার মাধ্যমে ব্যাপক পরিচিতি ও জনপ্রিয়তা অর্জন করেছেন। বিশেষত, গত বছর জঙ্গি হামলার কারণে মূল ইমাম ফরিদ উদ্দিন মাসউদ আসতে না পারায় তিনি অত্যন্ত সাহসিকতা ও বিচক্ষণতার সঙ্গে শান্তি-শৃঙ্খলার মাধ্যমে ঈদ জামাতের নেতৃত্ব দিয়ে সর্বমহলে প্রশংসিত হয়েছেন।

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button