আন্তর্জাতিক

ওজন কমানো’র রূপের নেশা শেষ হলো তার মৃত্যুতে

ঢাকা, ২৫ সেপ্টেম্বর,(ডেইলি টাইমস ২৪):

ওজন বেড়ে যাওয়ায় নিজের কাছে নিজের চেহারা ভাল লাগছিল না। কোনমতেই যেন নিয়ন্ত্রনে রাখতে পারছিলেন না ওজন। শেষমেশ চিকিৎসকের সঙ্গে পরামর্শ করে অস্ত্রোপচার করারই সিদ্ধান্ত নেন ‘রূপ সচেতন’ ৪৬ বছর বয়সী এক নারী।
কিন্তু শেষ পর্যন্ত অপারেশন টেবিলেই মৃত্যু হলো তার। রূপের নেশা শেষ হলো মৃত্যুর মাধ্যমে। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের চেন্নাইয়ে।
ঐ নারীর নাম ভালারমতি, চেন্নাইয়ের তিরুভান্নামালাই জেলায় বাড়ি। ওজন কমাতে লাইফেরাইন নামের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। প্রতিবেদন অনুযায়ী, ভালারমতির ওজন ছিল ১৫০ কেজি। তিন সন্তানের মধ্যে পুত্র সতিশ কুমার ১৩০ কেজি, মেয়ে সারাইনা ১২২ কেজি এবং সঙ্গীতার ওজন ছিল ৯৭ কেজি।
ভালারমতির স্বামী আজহাজেসান বলেন, ‘ওজন কমানো যায় বলে আমরা পত্রিকায় একটি বিজ্ঞাপন দেখেছিলাম। ডাক্তার জে এস রাজকুমার পরামর্শ দেন বারিয়াট্রিক সার্জারি করতে। কিন্তু কী চাইতে কী হয়ে গেল!’ শেষ খবর হলো, চিকিৎসকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছে তদন্তকারি পুলিশ প্রশাসন।
অনেক ক্ষেত্রে দেখা যায়, ডায়েট করে ওজন কমাতে না পারলে অস্ত্রোপচারের সিদ্ধান্ত নেন অনেকেই। কিন্তু সাবধান করছেন চিকিৎসকেরা। তারা বলছেন, অন্য সব অপারেশনে যেমন জীবনহানির ঝুঁকি থাকে, তেমনই ব্যারিয়াট্রিক সার্জারিও তার ব্যতিক্রম নয়। তাই মোটা হয়ে যাচ্ছেন মনে হলেই অপারেশন করতে যাবেন না। টাইমস অব ইন্ডিয়া।
Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button