জেলার সংবাদ

পূজামণ্ডপ পরিদর্শন করতে গিয়ে আ’লীগের দু’গ্রুপে সংঘর্ষ, আহত ২০

ঢাকা, ২৮ সেপ্টেম্বর,(ডেইলি টাইমস ২৪):

গাজীপুরে পৃথক পূজামণ্ডপ পরিদর্শন করতে গিয়ে আওয়ামী লীগ ও কৃষকলীগের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে।

কাপাসিয়ার আড়াল বাজারে দু’পক্ষের মধ্যে ধাওয়াপাল্টা- ধাওয়া ও সংঘর্ষে অন্তত ২০ জন আহত হয়েছেন। এসময় ২০টি মোটরসাইকেল ভাংচুর করা হয়।

আহতদের মধ্যে ঘাগটিয়া ইউনিয়ন কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক মালেক মোল্লা, কাপাসিয়া ইউনিয়ন কৃষকলীগের যুগ্ম সম্পাদক ইব্রাহিম, কৃষকলীগ নেতা আজহারও  রয়েছেন।

জানা যায়, দীর্ঘ দিন ধরে স্থানীয় সংসদ সদস্য সিমিন হোসেন রিমির নেতৃত্বে কাপাসিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগ ও কেন্দ্রীয় কৃষকলীগের সভাপতি মোতাহার হোসেন মোল্লার নেতৃত্বে উপজেলা কৃষকলীগ কার্যত দ্বিধাবিভক্ত হয়ে পড়েছে।

সম্প্রতি স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী তাজউদ্দীন আহমদের ভাগ্নে শিল্পপতি আলম আহমদের আর্থিক সহায়তায় কৃষকলীগের উদ্যোগে আওয়ামী লীগের সকল কর্মসূচিতে পাল্টা কর্মসূচি দিচ্ছেন। সেই মোতাবেক বুধবার সকালে আলম আহমেদ ঢাকা থেকে হেলিকপ্টার যোগে কাপাসিয়া পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে সকাল সাড়ে ১১টার দিকে অবতরণ করেন। পরে মোতাহার হোসেন মোল্লাসহ বিশাল বহর নিয়ে শতাধিক মোটর শোভাযাত্রা করে প্রথমে রাণীগঞ্জ পূজামণ্ডপ পরিদর্শন করেন।

পরে চাঁদপুর, বর্জনা, কড়িহাতা, আড়াল বাজারসহ বেশ কয়েকটি পূজামণ্ডপ পরিদর্শন করেন এবং ৪০টি পূজামণ্ডপে ৫ হাজার টাকা করে অনুদান প্রদান করেন।

অপরদিকে সকাল ১১টার দিকে এমপি রিমি দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে শীতলক্ষ্যা নদীর উত্তরে ৮ ইউনিয়নের পূজামণ্ডপ পরিদর্শনে যান।

কৃষকলীগের ওই বহর পূজামণ্ডপ পরিদর্শন শেষে বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে শিল্পপতি আলম আহমদের বাড়ি সংলগ্ন আড়াল বাজারে যাওয়ার সময় দু’পক্ষ মুখোমুখি হয়। এসময় রাস্তায় সাইড দেয়াকে কেন্দ্র করে উভয়পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। শুরু হয় ধাওয়াপাল্টা ধাওয়া।

এতে উভয়পক্ষের অন্তত ২০ নেতাকর্মী আহত হন। ভাংচুর করা হয় ২১টি মোটরসাইকেল। দু’পক্ষেরই গত দুদিন যাবত পূজামণ্ডপ পরিদর্শন নিয়ে ব্যাপক প্রস্তুতি ছিল।

এ ব্যাপারে আলম আহমদ জানান, তিনি প্রধানমন্ত্রী ও বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার লক্ষ্যে এলাকায় কাজ করে যাচ্ছেন। তার রাজনৈতিক কোনো ইচ্ছা নেই। স্থানীয় এমপি রিমির লোকজন তার শান্তিপূর্ণ কর্মসূচির ওপর হামলা করে কর্মীদের মারধর এবং মোটরসাইকেল ভাংচুর করেছে বলে তিনি অভিযোগ করেন।

কাপাসিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান প্রধান বলেন, কৃষকলীগের নেতারা এমপির গাড়ি বহরে ব্যারিকেড দেয়। পরে পুলিশের সহযোগিতায় আমরা গন্তব্যে চলে যাই। এসময় দু’পক্ষের মধ্যে অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটে।

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button