খেলাধুলা

দ্বিতীয় ম্যাচে জয় পেল ঢাকা

ঢাকা, ০৬ নভেম্বর, (ডেইলি টাইমস ২৪):

সিলেট সিক্সার্সের বিপক্ষে হার দিয়ে যাত্রা শুরু করলেও দ্বিতীয় ম্যাচেই দাপটের জিতেছে ঢাকা ডায়নামাইটস। রবিবার সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে খুলনা টাইটানসকে ৬৫ রানে হারিয়েছে তারা। টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে এভিন লুইস ও ক্যামেরন ডেলপোর্টের বিধ্বংসী ব্যাটিংয়ে ২০ ওভারে ২০২ রান তোলে ঢাকা। জবাবে খুলনা গুটিয়ে যায় ১৩৭ রানে।
ব্যাটে ঝড় তোলার আভাস দিলেও দলীয় ৩৮ রানে এক ছক্কা, দুই চারের মারে ১১ বলে ২০ কুমার সাঙ্গাকারা আউট হন শফিউলের বলে। প্রথম উইকেট হারানোর পর লুইস ও ডেলপোর্টের ব্যাটে ঠিকই ঝড়ো গতিতে আগায় ঢাকা। ৯.১ ওভারেই শত রান পূর্ণ করে ঢাকা। মোশাররফ হোসেন রুবেলের একমাত্র ওভারেই ডেলপোর্টের দুটি ছক্কা একটি চারসহ রান আসে ২১। শেষ পর্যন্ত শফিউলই থামান এই জুটিকে। দলীয় ১৫৪ রানে ৭ চার ও ৩ ছক্কায় ৪০ বলে ৬৩ করা লুইসকে নিজের দ্বিতীয় শিকারে পরিণত করেন তিনি। তবে ডেলপোর্টই ম্যাচসেরার পুরস্কার পান।
ডেলপোর্টের ঝড় আরও গতিসম্পন্ন। ২১ বলে করেন ৫০, যা এবারের আসরে এখনও পর্যন্ত দ্রুততম ফিফটি। তবে লুইস ফিরে গেলে খুব বেশিদূর ক্রিজে থাকতে পারেননি ডেলপোর্টও| ৫ ছক্কায় ৩১ বলে করেন ৬৪ রান করে আবু জায়েদের বলে এলবিডব্লুর ফাঁদে পড়ে ফিরে যান তিনি। যদিও এলবিডব্লিউর সিদ্ধান্তটি ছিল বিতর্কিত। এই জুটি ভাঙার পর একটু কমে রানের গতি। সুবিধা করতে পারেননি পোলার্ড-সাকিবরা। তবে শেষ দিকে সুনীল নারিনের দুটি ছক্কায় দুইশ’ রান পার করে ঢাকা।
বিপিএলে এটি অষ্টম বারের মতো দুইশ রান হওয়া ইনিংস পাঁচবারই করল ঢাকা। তবে বিপিএলে এটাই দলীয় সর্বোচ্চ স্কোর নয়। ২০১৩ আসরে ঢাকার ২১৭ রান এখনও বিপিএলের রেকর্ড।
জবাব দিতে নেমে সম্পূর্ণ ব্যর্থ খুলনা। ওপেনিং ঝড় তোলার চেষ্টা করলেও চাডউইক ওয়ালটন (১৩ বলে ৩০) ওয়ালটনকে বিদায় করেন নাজমুল হাসান শান্ত। শুরু থেকেই ব্যর্থতার বৃত্তে থাকা খুলনার পরবর্তী ব্যাটসম্যানদের মধ্যে জোফরা আর্চার (৩৬), রিলি রুশো (২৩) ও মোশারফ হোসেন (১৭) ছাড়া কেউ দুই অঙ্কও ছূঁতে পারেননি। খুলনার আবু হায়দার রনি তিনটি এবং সাকিব, সুনীল নারিন ও খালিদ আহমেদ দুটি করে উইকেট নেন।
Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button