জেলার সংবাদ

দুই উকিলসহ ৪ জন জেলহাজতে

ঢাকা, ০৭ নভেম্বর, (ডেইলি টাইমস ২৪):

জালিয়াতির মাধ্যমে সুনামগঞ্জ জেলা ও দায়রা জজ আদালতের হিসাব শাখা থেকে জমি অগ্রক্রয় মামলার ছয় বিচারপ্রার্থীর জমা ১৭ লাখ ৭৭ হাজার ৫৭৫ টাকা হাতিয়ে নেয়ার ঘটনায় দুই আইনজীবীসহ চারজনকে জেলহাজতে পাঠিয়েছেন আদালত।
এ মামলায় গ্রেফতারের পর আদালতে হাজির করা হলে সোমবার সুনামগঞ্জ আমলী আদালতের চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট রহিবুল ইসলাম তাদের জেলহাজতে পাঠানোর আদেশ দেন।
টাকা আত্মসাতের অভিযোগে রোববার সুনামগঞ্জ জজ কোর্টের আইনজীবী ও যুবলীগ নেতা অ্যাডভোকেট মাজহারুল ইসলাম, অ্যাডভোকেট রেজাউল করিম এবং আদালতের হিসাবরক্ষক ঘেনুচন্দ্র রায়কে আদালত এলাকা থেকে আটক করে পুলিশ।
এ ঘটনায় জড়িত মামলার অপর আসামি সুনামগঞ্জ জেলা ও দায়ারা জজ আদালতের অবরসপ্রাপ্ত কর্মচারী আবদুস সোবহানকে পুলিশ রোববার রাতে ফেনী থেকে আটক করে সুনামগঞ্জে নিয়ে আসে।
সুনামগঞ্জ জেলা জজ ও দায়রা জজ আদালতের নায়েব নাজির শিফাত শাহরিয়ার সোমবার বিকাল ৩টায় সুনামগঞ্জ সদর থানায় চারজনকে আসামি করে মামলাটি দায়ের করেন।
সোমবার বিকাল বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে ঘটনার খবর সংগ্রহ করতে গিয়ে আদালত এলাকায় দুই আইনজীবীর সহযোগীদের হাতে লাঞ্ছিত হয়েছেন সাংবাদিক শহীদনূর আহমদ ও জাহাঙ্গীর আলম। তারা আসামিদের জেলহাজতে নিয়ে যাওয়ার দৃশ্য ধারণ করতে গেলে কয়েকজন জুনিয়র আইনজীবী তাদের শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করেন এবং ক্যামেরা কেড়ে নেয়ার চেষ্টা করেন। এই ঘটনার নিন্দা জানিয়েছেন সুনামগঞ্জ রিপোর্টার্স ইউনিটির নেতারা।
সুনামগঞ্জ সদর মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আবদুল্লাহ আল মামুন জানান, দুই আইনজীবীসহ আটক চারজনের বিরুদ্ধে আদালতের অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে দায়ের করা মামলা এফআইআরভুক্ত করা হয়েছে। তদন্তপূর্বক জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।
উল্লেখ্য, সুনামগঞ্জ জজ আদালতে বিচারাধীন একটি অগ্রক্রয় মামলা নিষ্পত্তির পর আইনজীবী আলী আহমদ মোয়াক্কেলের আমানতকৃত টাকা উত্তোলনের জন্য আদালতে আবেদন করেন। দাফতরিক আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হওয়ার পর অর্থ পরিশোধের জন্য আবেদনটি হিসাব শাখায় পাঠানোর পর দেখা যায় অগ্রক্রয়ের মামলাটি বিচারাধীন থাকা অবস্থায় আইনজীবী ও যুবলীগ নেতা মাজাহারুল ইসলাম হিসাব শাখায় পেমেন্ট অর্ডার দাখিল করে অগ্রক্রয়ের ৪ লাখ ২০ হাজার টাকা উত্তোলন করে নিয়ে গেছেন। বিষয়টি জানাজানির পর এমন জালিয়াতির আরও ৫টি ঘটনা ধরা পড়ে। ছয় ঘটনার পাঁচটিতে মাজহারুল ইসলাম ও একটিতে রেজাউল করিম সংশ্লিষ্ট রয়েছেন।

 

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button