রাজনীতি

সুব্রামানিয়ামের বক্তব্য প্রত্যাহারের আহ্বান বিএনপির

ঢাকা , ০৭ অক্টোবর, (ডেইলি টাইমস ২৪):

ভারতের ক্ষমতাসীন বিজেপির নেতা ও রাজ্যসভার সদস্য শ্রী সুব্রামানিয়াম স্বামী বাংলাদেশ দখল ও দিল্লীর শাসন প্রতিষ্ঠার যে বক্তব্য দিয়েছেন তাকে অকূটনৈতিক অভিহিত করে তা প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়েছে বিএনপি।

একই সঙ্গে সুব্রামানিয়াম স্বামীর বক্তব্যের ব্যাপারে বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে কোনো ‘প্রতিবাদ না আসায়’ বিষয়টিকে ‘নতজানু পররাষ্ট্রনীতির পরিচায়ক’ বলে মনে করছে দলটি।

রোববার রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এই বিষয়ে কথা বলেন বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

তিনি বলেন, ‘সুব্রামানিয়াম স্বামী বাংলাদেশে সংখ্যালঘু হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর ধারাবাহিক নির্যাতন বন্ধ না হলে বাংলাদেশ দখলের এবং সমগ্র বাংলাদেশে দিল্লীর শাসন প্রতিষ্ঠার হুমকি দিয়েছেন বলে বাংলাদেশের গণমাধ্যমে প্রচারিত হয়। এর পরও গত কয়েক দিনের মধ্যে সরকার এ ব্যাপারে কোন প্রতিক্রিয়া জানায় নি।’‘

এটা শুধু ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সরকারের নতজানু পররাষ্ট্র নীতির পরিচায়ক নয়; সার্বভৌম বাংলাদেশের মর্যাদা ও স্বাতন্ত্র রক্ষায় সরকারের সীমাহীন ব্যর্থতার নগ্ন প্রকাশ বলে দেশবাসী মনে করে।’

বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘শেখ হাসিনার প্রতি ভারতের সমর্থন রয়েছে বলায় সুব্রামানিয়াম স্বামীর প্রতি কৃতজ্ঞ হয়ে সরকার বাংলাদেশে ভারতের হামলা চালানো ও বাংলাদেশকে দখল করে নেয়ার মতো বাংলাদেশের স্বাধীন অস্তিত্ব ও সার্বভৌমত্ব বিরোধী মারাত্মক হুমকিকে আমলে নেয়নি।’

‘দেশের চেয়ে নিজেদের স্বার্থকে অধিক গুরুত্ব দেওয়ায় পুনরায় প্রমানিত হলো যে, বর্তমান সরকার দেশের জনগণের প্রতিনিধিত্ব করে না, তারা অন্য কারো প্রতিভূ হিসাবে দেশ শাসন করে মাত্র। এই সরকারের কাছে ক্ষমতাই সবকিছু, দেশের স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্ব কিংবা মর্যাদার কোন গুরুত্ব নেই’, বলেন বিএনপির এই নেতা।

বাংলাদেশের স্বাধীন স্বত্ত্বা ও সার্বভৌমত্বের বিরুদ্ধে স্বামীর হুমকিকে অপ্রত্যাশিত, অকূটনৈতিকতিক এবং আগ্রাসী অভিহিত করে এর নিন্দা ও ক্ষোভ জানিয়েছেন রুহুল কবির রিজভী। তিনি অবিলম্বে তার এই বক্তব্য প্রত্যাহারের দাবি জানান। স্বাধীন বাংলাদেশের গর্বিত নাগরিকগণের সংগঠন হিসাবে বিএনপি প্রাসঙ্গিক বিষয়ে সরকারের নীরবতারও তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানাচ্ছে।

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button