বিনোদন

শরীরে ৫৪টি অস্ত্রোপচারের ভয়ঙ্কর গল্প শোনালেন কঙ্গনার বোন রঙ্গোলি

ঢাকা , ০৫ অক্টোবর, (ডেইলি টাইমস২৪):

কঙ্গনা রানাওয়াতের ম্যানেজার হিসাবে কাজ করার দৌলতে তার বোন রঙ্গোলি চান্দেলকে প্রায় কমবেশি অনেকেই চেনেন। তবে অনেকেই হয়তো জানেন না কঙ্গনার বোন রঙ্গোলিই প্রথম হিমাচল প্রদেশের প্রথম অ্যাসিড হামলার শিকার নারী। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় এ বিষয়েই মুখ খুলেছেন কঙ্গনা।

কিছুদিন আগেই সোশ্যাল মিডিয়ায় বোন কঙ্গনা ও মা-বাবার সঙ্গে ছেলেবেলার একটি ছবি পোস্ট করেছিলেন রঙ্গোলি। সেটা দেখেন রঙ্গোলিকে অনেকেই অনুরোধ করেন তার কলেজ জীবনের একটি ছবি পোস্ট করার জন্য। সেই মতই কলেজে পড়াকালীন নিজের একটি ছবি পোস্ট করেছেন রঙ্গোলি।

আর কলেজ জীবনের এই ছবি পোস্ট করার পরই নিজের অ্যাসিড আক্রান্ত হওয়ার পরবর্তীকালের একটি ছবি পোস্ট করেন রঙ্গোলি। যেখানে রঙ্গোলি লিখেছেন, ‘অ্যাসিড হামলার পর তিনি তার সৌন্দর্য হারিয়েছিলেন। তার গোটা শরীরে ৫৪টি অস্ত্রোপচার হয়েছিল। তবে ৫ জন চিকিৎসক মিলেও তার কান প্রতিস্থাপন করতে পারেননি। আমি আমার একটা চোখ হারিয়েছিলাম, রেটিনা ট্রান্সপ্ল্যান্ট করতে হয়েছিল। আমার শরীরের চামরা বিভিন্ন জায়গায় কুঁচকে গিয়েছিলো। যেগুলো চিকিৎসকরা ঠিক করেছেন। আমার একটা স্তনও প্রতিস্থাপন করতে হয়েছিল। এখানো আমি আমার ছেলে পৃথ্বীকে স্তনপান করানোর সময় অনেক সমস্যায় পড়ি।’

রঙ্গোলি আরো লিখেছেন, ‘আমি এখনো ঠিক করে ঘাড় ঘোরাতে পাড়ি না। আমাদের দেশে এখনো এ ধরনের বহু অ্যাসিড হামলার মত নৃশংস ঘটনা ঘটে। আর কালপ্রিটরা দিব্যি জামিয়ে ছাড়া পেয়ে যায়।’

২০০৬ সালে দেরাদুনে এক ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজে পড়ার সময় রঙ্গোলির উপর অ্যাসিড হামলা হয়। চণ্ডীগড়ের দুই যুবক কঙ্গনার বোন রঙ্গোলির উপর অ্যাসিড হামলা চালান বলে জানা যায়।

 

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button
Close