খেলাধুলা

ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে খুলনা ঢাল হলেন শান্ত

ঢাকা , ১৩ জানুয়ারি, (ডেইলি টাইমস২৪):

ওপেনার নাজমুল হোসেন শান্তর অনবদ্য হাফ-সেঞ্চুরিতে বঙ্গবন্ধু বিপিএলের প্রথম কোয়ালিফাইয়ারে রাজশাহী রয়্যালসের বিপক্ষে প্রথমে ব্যাট করে ২০ ওভারে ৩ উইকেটে ১৫৮ রান করেছে খুলনা টাইগার্স। ৫৭ বলে ৭৮ রানে অপরাজিত থাকেন শান্ত। মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে প্রথমে ফিল্ডিং করার সিদ্বান্ত নেয় রাজশাহী রয়্যালস। ব্যাট হাতে এবার আর উড়ন্ত সূচনা করতে পারেননি খুলনার দুই ওপেনার শান্ত ও মিরাজ।

তৃতীয় ওভারের প্রথম বলে দলীয় ১৫ রানে পাকিস্তানের মোহাম্মদ ইরফানের বলে স্লিপে ক্যাচ দিয়ে থামেন মিরাজ (৮)। এরপর উইকেটে যান এবারের আসরে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক দক্ষিণ আফ্রিকার রাইলি রুশো। ৪ বল খেলে ০ রানে ইরফানের দ্বিতীয় শিকার হন তিনি। ফলে ১৫ রানেই দ্বিতীয় উইকেট হারাতে হয় খুলনাকে। এরপর শান্ত-শামসুর রহমান জুটি বাঁধেন। শুরুতেই বিদায় নিতে পারতেন আগের ম্যাচে সেঞ্চুরি করা শান্ত। ব্যক্তিগত ৯ রানে পাকিস্তানের স্পিনার শোয়েব মালিকের বলে বোল্ড হয়েও নো বলের কারণে জীবন পান।

জীবন পেয়ে শামসুর রহমানকে নিয়ে দলের স্কোরকে বড় করছিলেন শান্ত। ১২ ওভার শেষে ৯০ রানে পৌঁছে যায় খুলনা। তবে ১৩তম ওভারে এই জুটি ভাঙ্গেন রাজশাহীর ইংলিশ খেলোয়াড় রবি বোপারা। ৩১ বলে ৩২ রান করে ফিরেন তিনি। তৃতীয় উইকেটে ৫৮ বলে ৭৮ যোগ করেন শান্ত-শামসুর। শামসুরের বিদায়ের পর ৩৬তম বলে হাফ-সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন শান্ত। অধিনায়ক মুশফিকুর রহিমকে নিয়ে দলের রানের চাকা সচল রাখেন। ১৯তম ওভারের দ্বিতীয় বলে হ্যামস্ট্রিংয়ের ইনজুরিতে পড়ে অবসর নেন ১৬ বলে ২টি চারে ২১ রান করা মুশফিক।

অধিনায়ক ফিরলে রাজশাহীর অধিনায়ক আন্দ্রে রাসেলের শেষ ওভারে ২২ রান তুলেন শান্ত ও আফগানিস্তানের নজিবুল্লাহ জারদান। শান্ত ২টি চার ও জাদরান ১টি করে চার ও ছক্কা মারেন। দুইবার জীবন পাওয়া শান্ত ৫৭ বলে ৭ বাউন্ডারি ও ৪টি ছক্কায় অপরাজিত ৭৮ রান করেন। আগের ম্যাচে ৫৭ বলে ৮টি চার ও ৭টি ছক্কায় অপরাজিত ১১৫ রান করেছিলেন এই তরুণ ব্যাটসম্যান। অপরপ্রান্তে ১টি করে চার-ছক্কায় ৫ বলে ১২ রান করেন জারদান। রাজশাহীর ইরফান ৪ ওভারে ১৩ রানে ২ উইকেট নেন।

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button
Close