আন্তর্জাতিক

উহানের সব মানুষের করোনা টেস্ট শেষ, মাত্র ৩০০ জন শনাক্ত!

ঢাকা , ০৩ জুন, (ডেইলি টাইমস২৪):

করোনাভাইরাসের উৎপত্তি শহর চীনের উহান। টানা কয়েক মাসের প্রচেষ্টায় শহরটির সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে আনার ঘোষণা দিয়েছিল চীনা কর্তৃপক্ষ। তবে কিছুদিন যেতে না যেতেই শহরটিতে নতুন করে কভিড-১‌৯ রোগী শনাক্ত হয়। ফলে উপসর্গহীন করোনা বাহকদের চিহ্নিত করতে শহরের সব মানুষের করোনা টেস্ট করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। বিশাল সেই কর্মযজ্ঞ শেষ হয়েছে।

গেল দু সপ্তাহে উহান শহরের সব বাসিন্দার অর্থাৎ, প্রায় ১ কোটি ১০ লাখ মানুষের করোনাভাইরাস পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। সেখানে মাত্র ৩০০ উপসর্গবিহীন রোগী শনাক্ত হয়েছে। সব নাগরিকের করোনা পরীক্ষার ফলে শহরটিতে নতুন করে করোনা সংক্রমণের ঝুঁকি নেই বললেই চলে।

মঙ্গলবার উহানের একজন কর্মকর্তা এপিকে বলেছেন যে, ‘১৪ ই মে থেকে ১ জুন পর্যন্ত এই শহরটি সব বাসিন্দা পরীক্ষা সম্পন্ন করেছে। পজিটিভ হওয়া ৩০০ জন ব্যক্তি সঙ্গে ঘনিষ্ঠ যোগাযোগ যাদের ছিল তাদের মাঝে কোনো সংক্রমণ না পেলে শহরটিকে সম্পূর্ণ করোনামুক্ত ঘোষণা করা হবে। আপাতত এই ৩০০ জনকে আলাদা করে রাখা হবে যাতে তাদের মাধ্যমে অন্যদের মাঝে সংক্রমণ ছড়াতে না পারে।’

এটাকে বড় সাফল্য উল্লেক করে চীনের রোগ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ কেন্দ্রের সহকারি পরিচালক ফেং জিজিয়ান বলেন, ‘এটি কেবল উহানের জনগণকে স্বস্তি দেবে না, বরং এটি চীন জুড়েই মানুষের আত্মবিশ্বাসকে বাড়িয়ে দেবে।’

পরীক্ষার জন্য গঠিত বিশেষজ্ঞের একটি টিমের সদস্য লি লানজুয়ান বলেন, ‘আগের পরীক্ষিতদের যদি নতুনদের সঙ্গে অন্তর্ভুক্ত করা হয় তবে ১ কোটি ১০ লাখ লোকের শহরে কার্যত ৫ বছরের বেশি বয়সের প্রত্যেকেরই পরীক্ষা করা হয়েছে। উহান শহর এখন নিরাপদ।’

চীনে যে পরিমাণ করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে তার শতকরা ৮০ ভাগ উহান শহরের। ভারত ইন্দোনেশিয়া থেকে শুরু করে যুক্তরাষ্ট্রের মত উন্নত দেশগুলো এখনো যাদের মধ্যে লক্ষণ আছে শুধু তাদের করোনা পরীক্ষা করাচ্ছে।

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button
Close