মুক্তমত

স্বাস্থ্য বিভাগকে সতর্ক ও দায়িত্বশীল হতে হবে

ঢাকা ,০৮ জুলাই,(ডেইলি টাইমস২৪):মীর আমির হোসেন আমু:  দেশে করোনা সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতিতে চিকিৎসা ও পরীক্ষা নিয়ে যখন জনমনে অসন্তোষ বিরাজ করছে, ঠিক সেই সময়ে করোনা পরীক্ষা নিয়ে নানা প্রতারণা সবাইকে অবাক করে তুলছে। মহাবিপর্যয়ের মধ্যেও কিছু অসাধু মানুষ পরিস্থিতির সুযোগ নিয়ে যেভাবে অসংখ্য ব্যক্তির জীবনকে বিপদের মধ্যে ফেলছে, তা খুবই লজ্জাজনক এবং বেদনাদায়ক। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর তৎপরতায় কিছু প্রতারক চক্রের গ্রেপ্তারের পরও এ ধরনের তৎপরতা থামানো যাচ্ছে না। নতুন করে আরও বিভিন্ন প্রতারণার ঘটনা বার বার ঘটছে।
এরকমই অনিয়ম আর প্রতারণার অভিযোগে গত সোমবার রাজধানীর বেসরকারি রিজেন্ট হাসপাতালে অভিযান চালিয়ে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী আট ব্যক্তিকে আটক করেছে। এবং হাসপাতালটি সিলকালা করা হয়েছে।
গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদনের তথ্য অনুযায়ী, টেস্ট না করেই রিপোর্ট প্রদান, চুক্তি ভঙ্গ করে রোগীদের কাছ থেকে বিল আদায়, বাড়ি বাড়ি গিয়ে নমুনা সংগ্রহ করে ভুল রিপোর্ট প্রদানসহ হাসপাতালটির বিরুদ্ধে নানা অভিযোগের প্রমাণ পেয়েছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। রিজেন্ট হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সরকারের সঙ্গে চুক্তি ছিল ভর্তি রোগীদের তারা কভিড পরীক্ষা করবে বিনামূল্যে। আইইডিসিআর, আইটিএইচ ও নিপসম থেকে ৪ হাজার ২০০ রোগীর বিনামূল্যে নমুনা পরীক্ষা করিয়ে এনেছে। কিন্তু রোগীদের কাছ থেকে তারা নমুনা পরীক্ষা বাবদ ১ কোটি ৪৭ লাখ টাকা আদায় করেছে, যা স্পষ্টতই চুক্তির বরখেলাপ। এতেই তারা ক্ষান্ত হয়নি, নমুনা পরীক্ষা না করেই আরও তিনগুণ লোকের ভুয়া করোনা রিপোর্ট তৈরি করেছে। এভাবে তারা প্রতারণার মাধ্যমে বিপুল পরিমাণ অর্থ আত্মসাৎ করেছে। ২০১৪ সালে অর্থাৎ ৬ বছর আগে হাসপাতালটির লাইসেন্সের মেয়াদ শেষ হয়েছে। তবুও তারা স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে কভিড ডেডিকেটেড হাসপাতাল হিসেবে কীভাবে সনদ নিয়েছে তা বোধগম্য নয়।
তারা জনস্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের মতো সরকারি প্রতিষ্ঠানের ল্যাব টেকনোলজিস্ট ও ভাইরোলজিস্টের স্বাক্ষর করা সনদ কীভাবে জোগাড় করেছে, সেটিও অনুসন্ধানের দাবি রাখে।
এরকম ঘটনা আগেও ঘটেছে।
এ প্রতারকরা এতটাই বেপরোয়া হয়ে উঠেছে যে, তারা বিদেশে গমনরত বাংলাদেশিদের অর্থের বিনিময়ে করোনা নেগেটিভ সার্টিফিকেটের জোগান দিচ্ছে। তাদের কারণে আন্তর্জাতিকভাবেও আমরা হেয় প্রতিপন্ন হচ্ছি।

সরকারের কাছে দাবী করোনা পরীক্ষার ক্ষেত্রে যেন কেউ প্রতারণার সুযোগ নিতে না পারে, তা নিশ্চিত করতে হবে। এক্ষেত্রে স্বাস্থ্য বিভাগকেও সতর্ক ও দায়িত্বশীল হতে হবে। আর প্রতারণার সঙ্গে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে আইনগত পদক্ষেপ নিয়ে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে।

ঢাকা ,০৮ জুলাই,(ডেইলি টাইমস২৪) /আর এ কে

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button
Close