আন্তর্জাতিকপ্রধান সংবাদ

এক বিএসএফ হত্যা করলো দুই বিএসএফে

ঢাকা , ০৪ আগস্ট,(ডেইলি টাইমস২৪): বাংলাদেশের সীমান্ত সংলগ্ন উত্তর দিনাজপুর জেলার রায়গঞ্জে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) এক সদস্যের গুলিতে নিহত হয়েছে তার দুই সঙ্গী। মঙ্গলবার রাত সাড়ে তিনটার দিকে এই খুনোখুনির ঘটনা ঘটে।

অভিযুক্ত বিএসএফ সদস্যের নাম উত্তম সূত্রধর। ভাতুন গ্রাম পঞ্চায়েতের বিএসএফ এর ১৪৬ নম্বর ব্যাটালিয়নের মালদাখণ্ড সীমান্ত চৌকিতে এদিন গুলির শব্দে গোটা ক্যাম্প কেঁপে ওঠে। অভিযুক্ত জওয়ান উত্তম সূত্রধর গুলি চালান তারই দুই সহকর্মীকে। ঘটনার পর সীমান্ত চৌকির কমান্ডারের কাছে আত্মসমর্পণ করেন তিনি। এই ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে বিএসএফ এর মালদাখণ্ড সীমান্ত চৌকিতে। খবর নিউজ এইটটিনের

গুলিবিদ্ধ মৃত বিএসএফ ইন্সপেক্টর মহিন্দর সিং ভাট্টি ও কনস্টেবল অনুজ কুমারের মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রায়গঞ্জ থানার পুলিশের হাতে তুলে দেয় বিএসএফ। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে রায়গঞ্জ থানা পুলিশ।

পুলিশ জানিয়েছে, রায়গঞ্জ থানার ভাতুন গ্রামপঞ্চায়েতের ভারত- বাংলাদেশ সীমান্ত এলাকার মালদাখন্ড সীমান্ত চৌকির বর্ডার রোডে চৌকির কাজে নিযুক্ত ছিলেন বিএসএফ এর ইন্সপেক্টর মহিন্দর সিং ভাট্টি, কনস্টেবল অনুজ কুমার এবং বিএসএফ জওয়ান উত্তম সূত্রধর। সোমবার রাতে তারা সীমান্ত পাহারায় নিযুক্ত ছিলেন। মঙ্গলবার ভোরে আচমকা বিএসএফ জওয়ান উত্তম সূত্রধর তার স্বয়ংক্রিয় রাইফেল থেকে অপর দুজনকে লক্ষ্য করে এলোপাতাড়ি গুলি ছুড়তে থাকে। সীমান্তেই ঘটনাস্থলে গুলিবিদ্ধ হয়ে মৃত্যু হয় বিএসএফ ইন্সপেক্টর মহিন্দর সিং ভাট্টি ও কনস্টেবল অনুজ কুমারের। এরপর নিজেই মালদাখন্ড সীমান্ত চৌকির কমান্ডারের কাছে গিয়ে আত্মসমর্পণ করেন ঘাতক বিএসএফ সদস্য উত্তম সূত্রধর। নিজের সঙ্গীদের কেন হত্যা করেছে ওই বিএসএফ সদস্য, তা জানতে পুলিশি তদন্ত শুরু করা হয়েছে।

ঢাকা , ০৪ আগস্ট,(ডেইলি টাইমস২৪) /আর এ কে

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button