জেলার সংবাদ

বেনাপোলে ৮ম শ্রেনীর ছাত্রীকে ফুসলিয়ে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ

ঢাকা , ০৭আগস্ট,(ডেইলি টাইমস২৪): বেনাপোল প্রতিনিধিঃ
বেনাপোলে ৮ম শ্রেনীর এক ছাত্রীকে ফুসলিয়ে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। ঘটনাটি ঘটেছে পোর্ট ানার পুটখালী গ্রামে। তবে মেয়েটি নিখোঁজের গত ৫ দিনেও সন্ধান মেলেনি । এ ব্যাপারে জড়িত াকার জন্য একজন আটক হলেও তাকে উভয় পক্ষের শালিশের পর থানা থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

৮ম শ্রেনী পড়ুয়া ওই মেয়েটির পিতা রাছেল হোসেন বলেন, গত ৩ আগষ্ট তার মেয়েকে শার্শার টেংরা গ্রামের শাহজাহানের ছেলে সজীব ফুসলিয়ে নিয়ে গেছে। আমার মেয়ের বয়স মাত্র ১৩। আমি গত ৫ দিন যাবৎ আমার মেয়েকে উদ্ধারের জন্য চেষ্টা করছি কিন্ত এখনো কোন সন্ধান মেলেনি। তবে এ ব্যাপারে বেনাপোল পোর্ট থানায় একটি অভিযোগ দেওয়া হয়েছে। সজীব এর সাথে আশিক নামে একজন জড়িত থাকার অভিযোগে আটক হয়েছে।

মেয়েটির দাদি ছকিনা খাতুন, ফুপু শিল্পী খাতুন ও কাকা ফিরোজ বলেন, টেংরা গ্রামের সজীব নামে ছেলেটি তার ভাগ্নিকে ফুসলিয়ে নিয়ে গেছে। আমরা এর বিচার চাই। শিল্পী বলে আশিক আটক হওয়ার পর তার আত্নীয় স্বজন আমাদের বাড়িতে এসে ভয়ভীত দেখিয়েছে। এবং বিষয়টি মিমাংসার জন্য চাপ সৃষ্টি করলে গ্রামের লোকজন এর মাধ্যেমে মেয়েটি ৫ দিনের মধ্যে ফিরিয়ে দেওয়ার আশ্বাস দিয়ে আশিককে থানা থেকে ছাড়িয়ে নিয়েছে।

মেয়েটির মা বলেন তার মেয়ের সাথে সজিবের সম্পর্ক ছিল। তার মেয়ের বিয়ের জন্য অন্যত্র পাত্র দেখা দেখি এবং সম্বন্ধ পাকাপাকি হওয়ার পর তার নাবালক মেয়েকে ফুসলিয়ে ওই ছেলে নিয়ে গেছে।

স্থানীয় একটি সুত্র জানায় প্রভাবশালীদের চাপে মেয়ের পিতা রাছেল শালিশের সিদ্ধান্ত মেনে নিয়েছে।

এ ব্যাপারে বেনাপোল পোর্ট থানার এস আই জাকির হোসেন বলেন পুটখালী গ্রামের ওই ঘটনায় উভয় পক্ষের অভিভাবকরা বসে আপোস করে আটক আশিককে নিয়ে গেছে। মেয়ের পিতা রাছেল হোসেন ওই শালিসে থেকে সব কিছু মেনে নিয়েছে।

ঢাকা , ০৭আগস্ট,(ডেইলি টাইমস২৪) /আর এ কে

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button