জেলার সংবাদ

চট্টগ্রামের সর্বোত্র-ই সিএনজিতে অতিতের মতো যাত্রী নেয়া হলে ও ভাড়া কিন্তু দ্বিগুন

ঢাকা , ১০আগস্ট,(ডেইলি টাইমস২৪): এম, এ কাশেম॥ চট্টগ্রাম থেকেঃ ঈদের সময সরকার ও স্থানীয় প্রশাসনের বেঁধে দেয়া নিয়মানুসারের নির্দেশে দ্বিগুন ভাড়া নিয়ে যাত্রী সংখ্যা কম নেয়ার। কিন্তু, উত্তর চট্টগ্রামের সর্বোত্র-ই চলছে এ গুরত্বপূর্ন গণ পরিবহনে চালক নামের দুবৃত্তদের দৌরাত্ম। উত্তর চট্টগ্রামের প্রায় সব এলাকাতে যদি ও বা এক-ই অবস্থা বিদ্যমান তার মধ্যে মীরসরাই উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় চলাচলকারী সিএনজি চালকরা যেনো সরকার ও প্রশাসন থেকে দ্বিগুন-তিনগুন ক্ষমতা রাখে ! আর যার কারনে-সরকার ও প্রশাসনের নির্দেশকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে আগের মতো ৫/৬জন যাত্রী নিলে ও কিন্তু ভাড়া নিচ্ছে দ্বিগুন ! অথাৎ- প্রতি কিলোমিটার পূর্বেকার ৫টাকার স্থলে এখন নেয়া হচ্ছে ১০ টাকা করে। নামে মাত্র ঈদের আগে স্থানীয় প্রশাসনকে দেখানোর জন্য পিছনের সীটে ৩জনের জায়গায় নেয়া হয়েছিলো ২জন এবং সামনে না নেয়ার কথা থাকলে ও নেয়া হয়েছে যথারিতি। অল্প কয়েক দিন এভাবে চালানোর সময় সেনা বাহিনীর নির্দেশায়িত ভয়ে সামনের সীটে যাত্রী নেয়া থেকে বিরত ছিলো। হিসেব মোতাবেক প্রতি কিলোমিটার পিছনে ৩ ও সামনে ২ মিলিয়ে মোট ৫জন যাত্রী নেয়ার মধ্য দিয়ে চলে আসছিলো এই গুরত্বপূর্ন গণ পরিবহন। এতে ভাড়া উঠতো প্রতি কিলোমিটার প্রতিজন ৫টাকা হারে ৫জনের ২৫ টাকা। কিন্তু, ‘করোনা’ কালিন সময়ে দুরত্ব বজায় রাখার স্বার্থে প্রশাসনিক নির্দেশে তারা যাত্রী সংখ্যা কমিয়ে ১০টাকা হারে আদায় করছিলো। কিন্তু, অল্প ক’দিন এ অবস্থা চলার পর এখন দেখা যাচ্ছে যাত্রী নেয়া হচ্ছে পিছনে ৩ এবং সামনে ও ৩! আর দুরত্বের কপালে কুঠারাঘাত করে যাত্রীদের জিম্মি করে তারা আদায় করে নিচ্ছে সেই ১০টাকা হারে। হিসেবে দেখা গেছে-পূর্বেকার সময়ে যেখানে প্রতি কিলোমিটার প্রতি যাত্রী ভাড়া ৫টাকা করে সামনে ২ এব পিছনে ৩জন মিলিয়ে ৫জন যাত্রীর কাছ থেকে বাড়া নেয়া হতো ৫+৫=২৫ টাকা। আর এখন ‘করোনা’ সুবাদে অল্প ক’দিন প্রশাসনকে দেখিয়ে খুশি করার মানসে যাত্রী কমিয়ে প্রতি যাত্রী থেকে ৫টাকার স্থলে ১০টাকা করে নিয়ে থাকলে ও কিন্তু বর্তমানে প্রশাসনের নেক্ নজরহীন থাকায় তারা পিছনে ৩ এবং সামনে ৩মিলিয়ে ৬জন যাত্রী নিয়ে-ই চালাচ্ছে এই মহাগুরত্বপূর্ন গণ পরিবহন সিএনজি চালিত অটো রিক্সা! হিসেব মতে দেখা যাচ্ছে পূর্বেকার ৫+৫=২৫টাকার স্থলে এখন ১০+৫/৬=৫০/৬০টাকা ! অবশ্য কেউ কেউ বলছে সেটা কেবল ঈদের সময়-ই নেয়া হয়েছে এখন নয়।
কিন্তু, প্রত্যক্ষদর্শী ও ভূক্তভোগীরা জানিয়েছে তা শুধু ঈদের সময় কেনো এখনো তো চলছে ঠিক্ আগের মতো-ই ! যাত্রী নিচ্ছে আগের মতো ৫/৬জন। আর ভাড়া নিচ্ছে ৫ এর জায়গায় ১০টাকা করে। এ বিষয়টি স্থানীয় সংশ্লিষ্ট প্রশানের দৃষ্টির বাইরে না হলে ও কেনো জানি তারা নিরব রয়েছে ! এমতাবস্থায় সবার-ই মনে প্রশ্ন জাগছে-প্রশাসন কোথায় ? দেখে ও না দেখার ভ্যান করে যাচ্ছে কেনো প্রশাসন ?
উল্লেখ্য যে, গত কয়েত দিন পূর্বে এ সংক্রান্ত একটি নিউজ ‘ডেইলী টাইমস্’ পত্রিকায় প্রকাশিত হওয়ার পর বিভিন্নজনের কাছে প্রশংসনিয় হওয়ার পাশাপাশি আইন শৃংখলা বাহিনী ও তৎপর হয়ে উঠেছিলো। ফলে- কিছুটা হলে ও মানসিক দমন-পিড়ন চলে সিএনিিজ চালকদের ওপর। অত:পর এখন াাবার পূর্ব কায়দায় চলে আসায় বিভিন্নজন আবার অনুরোধ করেছেন যে, বিষয়টির ওপর আরেকটি নিউজ করার জন্য।

ঢাকা , ১০আগস্ট,(ডেইলি টাইমস২৪) /আর এ কে

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button