রাজনীতি

ভাষা সৈনিক নুরুল ইসলাম দাদু’র মৃত্যুতে বাংলাদেশ ন্যাপ’র শোক

ঢাকা, ২০ অক্টোবর(ডেইলি টাইমস২৪): বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ, সাবেক সংসদ সদস্যৃ ও বায়ান্নর ভাষা আন্দোলনের বীর সোননী ভাষা সৈনিক এম নূরুল ইসলাম দাদু ভাই’য়ের ইন্তেকালে গভীর শোক ও দু:খ প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-বাংলাদেশ ন্যাপ চেয়ারম্যান জেবেল রহমান গানি ও মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া।

বুধবার (২১ অক্টোবর) গণমাধ্যমে প্রেরিত এক শোকবার্তায় নেতৃদ্বয় মরহুমের রুহের মাগফেরাত কামনা ও শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।

তারা বলেন, খুলনার রাজনীতিতে সর্বজন শ্রদ্ধেয় ভাষা সৈনিক নূরুল ইসলাম দাদু ভাই’য়ের মৃত্যুতে অভিভাবক শূণ্য হয়ে পড়লো। অমায়িক ও মেধাবী এই রাজনীতিক মজলুম জননেতা মওলানা ভাসানীর অনুসারী হিসাবেও ৬৯’র গণআন্দোলনসহ স্বাধীন বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠায় মহান মুক্তিযুদ্ধে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন।

উল্লেখ্য, ভাষাসংগ্রামী এম নূরুল ইসলাম দাদু ১৯৩৪ সালের ২ মে খুলনা মহানগরীর ২০ বাবুখান রোড এলাকায় সম্ভ্রান্ত পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবা ডা. খাদেম আহমেদ এবং মা আসিয়া খাতুন। তিনি উচ্চ মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট পাস করার পর ছাত্রজীবনে নিখিল বাংলা মুসলিম ছাত্রলীগের খুলনা শাখার সাধারণ সম্পাদক, ১৯৫২ সালে হক-ভাসানী-সোহরাওয়ার্দীর যুক্ত ফ্রন্টে, ১৯৫৭ সালে ন্যাপের খুলনা শাখার প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক, ১৯৬২ সালে খুলনার জাহানাবাদ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান, ১৯৬৮-৬৯-এর ঐতিহাসিক গণঅভ্যুত্থানে নেতৃত্ব দান, ১৯৭১-এর মহান মুক্তিযুদ্ধে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন, ১৯৭২ সালে ন্যাপের খুলনা মহানগর শাখার সভাপতি ও কেন্দ্রীয় সদস্য, ১৯৭৮ সালে প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের জাতীয়তাবাদী যুক্তফ্রন্টে যোগদান, ১৯৭৯ সালে খুলনা মহানগর বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি এবং কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য, ২০০১ সালে খুলনা-৪ আসন (রূপসা-তেরখাদা-দিঘলিয়া) থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। সর্বশেষ তিনি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। তিনি সবার কাছে ‘দাদু’ নামে পরিচিত ছিলেন।

ঢাকা, ২০ অক্টোবর(ডেইলি টাইমস২৪)/আর এ কে

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button