জেলার সংবাদ

শার্শায় পল্লী চিকিৎসকদের বৈঠকে চেয়ারম্যান কালামের হামলা

ঢাকা, ৩০ নভেম্বর (ডেইলি টাইমস২৪): বেনাপোল প্রতিনিধিঃ
শার্শার নিজামপুর ইউনিয়ন এর বিতর্কিত চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ পল্লী চিকিৎসকদের কনফারেন্স বৈঠকে প্রবেশ করে চেয়ার টেবিল ভেঙ্গে দিয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। অপসোনিন কোম্পানির নতুন ঔষধ সম্পর্কে শার্শার তিনটি ইউনিয়নের পল্লী চিকিৎসকদের রোববার বেলা ১১ টার সময় এ কনফারেন্স অনুষ্ঠিত হয়। স্থানীয় চেয়ারম্যান আবুল কালামের অনুমতি না নেওয়ায় তিনি সদলবলে ঘটনাস্থল গোড়পাড়া বাজারে উপস্থিত থেকে চেয়ার টেবিল ভাঙা সহ অকথ্য ভাষা ব্যবহার করে বলে অভিযোগ করে স্থানীয় চিকিৎসকরা।

গোপাড়া বাজারের ডাক্তার ওবাইদুর রহমান, ডাক্তার উজ্জল ও নিজামপুর বাজারের ডাক্তার ওবাইদুর রহমান বলেন চেয়ারম্যানের অনুমতি না নিয়ে গোড়পাড়া বাজারে বৈঠক করায় এ ভাংচুর এর ঘটনা ঘটে। ওই বৈঠকে নিজামপুর, ডিহি ও লক্ষনপুর ইউনিয়নের ৬০ জন ডাক্তারকে নিয়ে অপসোনিন কোম্পানি তাদের ঔষুধ এর ধারনা সংক্রান্ত কনফারেন্স করেন। পল্লীচিকিৎসক সমিতির সভাপতি আবু নশর উদ্দিন বলেন আমরা বৈঠক করার সময় চেয়ারম্যান এর নেতৃত্বে নিজামপুর ইউনিয়ন এর যুবলীগের সভাপতি আলাউদ্দিন এ ভাঙচুর এর মত ঘটনা ঘটায়। তবে আজ থানা কমিটির নেতাদের নিয়ে বসে বিষয়টি মিমাংসা হয়েছে।

এ ব্যাপারে ওই ইউনিয়ন এর ডাক্তার বিল্লাল হোসেন সহ কয়েকজন বলেন এ নিয়ে আমরা মুখ খুলতে পারব না। আমরা এ ব্যাপারে কিছু বললে আমাদের উপর নির্যাতন বেড়ে যাবে। উল্লেখ্য কয়েকদিন আগেও চেয়ারম্যান ওই বাজারের একটি দোকান থেকে ১৩৩৮৮ টাকার চা বাকি খেয়ে টাকা না দেওয়ায় দোকানদার পরবর্তী বাকি দিতে রাজী না হলে তাকে মারধর করে দোকান থেকে উচ্ছেদ করে বাড়ি পাঠিয়ে দেয়।
এ ব্যাপারে চেয়ারম্যান কালাম এর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন এরকম কোন ঘটনা আমাদের বাজারে ঘটে নাই।

ঢাকা, ৩০ নভেম্বর (ডেইলি টাইমস২৪)/আর এ কে

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button