জেলার সংবাদলিড নিউজ

বরিশাল থেকে সব রুটে বাস-লঞ্চ বন্ধ চলাচল

ডেইলি টাইমস ২৪: বরিশাল থেকে স্থানীয় রুটের লঞ্চ এবং স্থানীয় ও দূরপাল্লার সব রুটের বাস চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। গতকাল বুধবার (১৮ আগস্ট) রাতে বরিশাল সদর ‍উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সঙ্গে সিটি করপোরেশনের কর্মীদের বাগবিতণ্ডা হয়। এক পর্যায়ে ইউএনওর বাসভবনে হামলা ও গুলি চালানো হয়।

এ সময় ইউএনওর নিরাপত্তায় নিয়োজিত আনসার সদস্যরা পাল্টা গুলি চালালে আওয়ামী লীগের বেশ কয়েকজন নেতাকর্মী আহত হন। এর জেরে সকাল থেকে বাস-লঞ্চ চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন পরিবহন সংশ্লিষ্টরা। এতে অবর্ণনীয় দুর্ভোগে পড়েছেন যাত্রীরা।

জানা গেছে, আজ বৃহস্পতিবার (১৯ আগস্ট) সকাল থেকে বরিশাল নদীবন্দর থেকে স্থানীয় রুটের লঞ্চ চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। লঞ্চের শ্রমিকরা জানান, স্থানীয়ভাবে লঞ্চ চলাচল বন্ধ করতে তাদের বলা হয়েছে। তবে বা কারা এ আদেশ দিয়েছেন, সে বিষয়ে মুখ খুলতে রাজি হননি লঞ্চ শ্রমিকরা।

বিআইডব্লিউটিএর বরিশাল বন্দর কর্মকর্তা মোস্তাফিজুর রহমান জানান, গতকাল রাতে সদর উপজেলার ইউএনও ও বরিশাল সিটি করপোরেশন কর্তৃপক্ষের ভেতর ঘটে যাওয়া অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার জেরে লঞ্চ মালিকরা সকাল থেকে লঞ্চ চলাচল বন্ধ রেখেছে। তবে লঞ্চ চলাচল শুরু করার ব্যাপারে মালিকদের সঙ্গে বিআইডব্লিউটিএ কর্তৃপক্ষের আলোচনা চলছে।

এদিকে হঠাৎ করে যাত্রীবাহী যানবাহন চলাচল বন্ধ হওয়ায় বিপাকে পড়েন যাত্রীরা। তারা জানান, অনেকেরই নির্ধারীত নানা কর্মসূচি ছিল, কিন্তু নদীবন্দরে এসে তারা লঞ্চ চলাচল বন্ধ দেখতে পান। এ কারণে বিপাকে পড়েন তারা।

অপরদিকে ভোর থেকেই বরিশাল নথুল্লাবাদ ও রূপাতলী বাস টার্মিনাল থেকে স্থানীয় ও দূরপাল্লার সব রুটে বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে। তবে এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি পরিবহন ব্যবসায়ী বা শ্রমিকেরা। এতে দুর্ভোগে পড়েছেন এই দুই বাস টার্মিনালে আসা যাত্রীরা।

বুধবার রাতে বরিশাল সদর উপজেলা পরিষদ চত্বরে অবৈধ বিলবোর্ড, ব্যানার, ফেস্টুন উচ্ছেদ করতে অভিযান চালায় বরিশাল সিটি করপোরেশনের কর্মীরা। কিন্তু উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) তাদের অভিযান বন্ধ করে সকালে অভিযানে চালাতে বলেন। কিন্তু সেটি না মেনে ইউএনওর সঙ্গে দ্বন্দ্বে জড়িয়ে পড়েন সিটি কপোরেশন কর্মী এবং আওয়ামী লীগ-ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। একপর্যায়ে তারা ইউএনওর বাসভবনে হামলা চালান। এ সময় ইউএনওর নিরাপত্তায় আনসার সদস্যরা গুলি চালালে বেশ কয়েকজন আহত হন। খবর পেয়ে পুলিশ সেখানে গেলে পুলিশের সঙ্গেও হামলাকারীদের সংঘর্ষ হয়। এতে বেশ কয়েকজন পুলিশ সদস্যও আহত হন।

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button