প্রধান সংবাদরাজনীতি

বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এম এ মান্নানের জানাজা সম্পন্ন

ডেইলি টাইমস ২৪:  গাজীপুর সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র ও বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান এম এ মান্নানের জানাজা নামাজ অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার সকালে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনের সড়কে এ জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।

বাদ জুমা গাজীপুর জয়দেবপুর রাজবাড়ী মাঠে নামাজের জানাজা শেষে তাকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হবে। সেখানে বাবা-মা ও স্ত্রী’র কবরের পাশে শায়িত হবেন এই নেতা।

কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে জানাজা শেষে মির্জা ফখরুল নেতা কর্মীদের নিয়ে মরহুমের মরদেহে ফুল দিয়ে শেষ শ্রদ্ধা জানান।

এর আগে এম এ মান্নানের প্রতি স্মৃতি চারণ করে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, এম এ মান্নান একটা গণমানুষের নেতা ছিলেন। ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন থেকে শুরু করে উপজেলা, সংসদ নির্বাচন এবং মেয়র নির্বাচনে তিনি সব সময়ই জনগণের প্রিয় নেতা হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার পুরো রাজনৈতিক জীবনই ছিলো জনগণের কল্যাণে নিবেদিত। আর সত্যিকার অর্থে একজন তৃণমূল নেতা বলতে যা বুঝা যায় এম এ মান্নান সেই নেতা ছিলেন।

গাজীপুরের রাজনীতিতে একটা বিরাট শূন্যতার সৃষ্টি হলো মন্তব্য করে ফখরুল বলেন, আজকে যে সময় এই ফ্যাসিবাদী সরকারের নির্যাতনে ও নিপীড়নে সাধারণ মানুষ অসহায় হয়ে পড়েছে, গণতন্ত্র যখন সম্পূর্ণ রূপে হরণ করা হয়েছে, মানুষের ভোটের অধিকার কেড়ে নেয়া হচ্ছে, সেই সময়ে মান্নানের চলে যাওয়ার আমাদের গাজীপুরের রাজনীতিতে শূন্যতা সৃষ্টি হলো, এ সহজে পূরণ হবার নয়।

জানাজায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী, নজরুল ইসলাম খান, ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু, আহমদ আযম খান, যুগ্স মহাসচিব হাবিব-উন-নবী-খান সোহেল, প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরীসহ কয়েক শতাধিক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে, গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে বাদ এশা বাড়িধারা ডিওএইচএস মসজিদে এম এ মান্নানের জানাজা নামাজ অনুষ্ঠিত হয়েছে। জানাজা শেষে রাতে মরদেহ ঢাকা নিজ বাসায় ফ্রিজিং অ্যাম্বুলেন্সে রাখা হয়।

গতকাল বিকেলে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন এম এ মান্নান। ৭২ বছর বয়সী এম এ মান্নান দীর্ঘদিন ধরে কিডনি জটিলতাসহ নানা সমস্যায় ভুগছিলেন।

এম এ মান্নান ১৯৫০ সালে গাজীপুর জেলা সদরের দক্ষিণ সালনায় জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৮৪ সালে অনুষ্ঠিত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে তিনি গাজীপুরের কাউলতিয়া ইউপির চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। পরে আরো দুই মেয়াদে তিনি ওই ইউপির চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছিলেন।

এরপর ১৯৯১ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে গাজীপুর-২ (গাজীপুর সদর ও টঙ্গী) আসন থেকে এম এ মান্নান সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। পরে তিনি বিএনপি সরকারের ধর্ম প্রতিমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button