বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

শীঘ্রই বাজারে আসছে আকর্ষণীয় ডিজাইনের অপো এফ২১ প্রো ফাইভজি

ডেইলি টাইমস ২৪:  নান্দনিক ডিজাইনের সাথে সর্বাধুনিক প্রযুক্তিগত উদ্ভাবনীর সমন্বয় ঘটিয়ে জনপ্রিয়তার শীর্ষে জায়গা করে নিয়েছে স্মার্ট ডিভাইস ব্র্যান্ড অপো। আর এই ধারাবাহিতাকে অক্ষুণ্ণ রেখে, অপো এবারে দেশের বাজারে আনতে যাচ্ছে তাদের এফ সিরিজের সর্বশেষ সংস্করণ – অপো এফ২১ প্রো ফাইভজি।
ব্যবহারকারীদের উন্নত স্মার্টফোন অভিজ্ঞতা প্রদানে সিএমএফ (রঙ, উপকরণ, ফিনিশ) এর ক্ষেত্রে সর্বদা নিজেদের সেরাটি দিয়ে থাকে অপো। বর্তমানে স্মার্টফোনের ডিজাইন মানুষের রুচি ও ব্যক্তিত্ব ফুটিয়ে তোলার অনুসঙ্গে রূপ নিয়েছে। ফোনের ডিজাইন তরুণদের ব্যক্তিগত স্টাইলকে তুলে ধরে বলে হাতে দুর্দান্ত ডিজাইনের স্মার্টফোন ছাড়া তাদের লাইফস্টাইল যেন একেবারেই অসম্পূর্ণ থেকে যায়। উদ্ভাবনী অপো গ্লো ও ডুয়াল অরবিট লাইট ডিজাইনের সাথে অপো এফ২১ প্রো ফাইভজি তরুণদের স্টাইলকে নতুন এক উচ্চতায় নিয়ে যাবে বলে আশা করা যাচ্ছে।
নান্দনিক ডিজাইনের সাথে প্রযুক্তির সমন্বয়ের এক নিখুঁত উদাহরণ এই ফোনটি। এর কালার ফিনিশ অত্যন্ত চমৎকার। মেগা লেন্স এবং মেগা পোর্ট্রেটের সাহায্যে স্মার্টফোনটিতে রংধনুর মতো প্রিজম্যাটিক ভিজ্যুয়াল ইফেক্ট তৈরির মাধ্যমে কালার ফিনিশ দিতে এফ২১ প্রো ফাইভজি’তে উন্নত সিএমএফ (রঙ, উপকরণ, ফিনিশ) কৌশল ব্যবহার করা হয়েছে। মাল্টি-টেক্সচার স্প্লাইসিং প্রক্রিয়া যুক্ত এই ফোনটি অপো গ্লো ম্যাট ফিনিশের পাশাপাশি অত্যন্ত মনোমুগ্ধকর ডিজাইনের পরিচয় বহন করে।
যারা ছবি তুলতে পছন্দ করেন, তাদের জন্য এফ২১ প্রো ফাইভজি অসাধারণ এক সঙ্গী হতে পারে। ক্যামেরা বেইজ ম্যাটেরিয়াল না থাকায় ফোনটি বেশ ভিন্নধর্মী লুক দিবে। ফোনের ব্যাক কভারে এক স্বপ্নময় চমৎকার আভা (রাতের আকাশ থেকে নেমে আসা দুটি নজরকাড়া রিং) তৈরিতে উদ্ভাবনী ডুয়াল অরবিট লাইট ডিজাইন ব্যবহার করা হয়েছে।
এফ২১ প্রো ফাইভজি ব্যবহারকারীদের স্টাইলে নতুন মাত্রা যোগ করবে বলে আশা করা যাচ্ছে। হালকা গড়নের ডিজাইন, ব্যবহারের স্বাচ্ছন্দ্য এবং দীর্ঘস্থায়িত্বের বৈশিষ্ট্যের সাথে অপো এফ২১ প্রো ফাইভজি স্মার্টফোনপ্রেমীদের প্রত্যাশা পূরণ করবে বলে আশা করা যায়। আগামী ২ জুন অপো এফ২১ প্রো ফাইভজি উন্মোচন করা হবে। ফোনটির ফিচার সম্পর্কে আরও বিস্তারিত জানতে আগ্রহী ক্রেতা ও অপো ফ্যানরা চোখ রাখুন অপো’র সোশ্যাল মিডিয়া পেইজে।
/পো সম্পর্কে:
বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় স্মার্ট ডিভাইস ব্র্যান্ড অপো। ২০০৮ সালে তাদের প্রথম মোবাইল ফোন ‘স্মাইলি ফেস’ উন্মোচনের পর থেকে গ্রাহকদের নান্দনিক ও উদ্ভাবনী প্রযুক্তির মিশেলে তৈরি ডিভাইস সরবরাহের জন্য নিবেদিতভাবে কাজ করছে অপো। বর্তমানে অপো ফাইন্ড এক্স ও রোনো সিরিজসহ বিস্তৃত পরিসরের স্মার্ট ডিভাইস বাজারে নিয়ে আসছে। ডিভাইসের পাশাপাশি, অপো তাদের গ্রাহকদের জন্য অপো ক্লাউড এবং অপো+ এর মতো কালারওএস অপারেটিং সিস্টেম ও ইন্টারনেট সেবা প্রদান করছে। বিশ্বের ৫০টিরও বেশি দেশ এবং অঞ্চলে অপো তাদের কার্যক্রম পরিচালনা করছে। বিশ্বব্যাপী গ্রাহকদের উন্নত সেবা প্রদানের লক্ষ্যে অপো’র ৪০,০০০ হাজারেরও বেশি কর্মী কর্মরত আছেন।

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button