লাইফস্টাইল

গরম পানিতে আদা, রসুন এবং মধুর উপকারিতা

ডেইলি টাইমস ২৪: আদা ও রসুন। রান্নাঘরের সবচেয়ে সাধারণ দু’টি মশলা। বেশিরভাগ রান্নাতেই আমরা আদা, রসুন ব্যবহার করি। শুধু রান্না সুস্বাদু করতেই নয়, বিভিন্ন রোগের চিকিৎসার জন্য ওষুধ হিসেবেও ব্যবহৃত হয় এই দু’টি মশলা। সাধারণত সর্দি এবং গলা ব্যথা নিরাময়ে সবচেয়ে বেশি ব্যবহার হয় এগুলো।

আদা ও রসুন খেলে অনেক উপকার মেলে; এটা সবারই জানা। এবার জেনে নিন এই উপকরণ দু’টি যদি মধু এবং কুসুম গরম পানির সাথে মিশিয়ে পান করেন তাহলে কী কী উপকার পাওয়া যাবে—

আদা, রসুন এবং মধু গরম পানির সঙ্গে মিশিয়ে শ্বাসযন্ত্রের সংক্রমণ এবং অন্যান্য বেশ কয়েকটি স্বাস্থ্য সমস্যার চিকিৎসার জন্য বিশ্বজুড়ে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল, অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল এবং অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি বৈশিষ্ট্যগুলোর কারণে মিশ্রণটি মানবস্বাস্থ্যের উপর উল্লেখযোগ্য প্রভাব ফেলে।

সংক্রমণ নিরাময়
হালকা কুসুম গরম পানির সঙ্গে আদা, রসুন এবং মধুর মিশ্রণ ক্ষতিকারক ব্যাকটেরিয়া এবং ভাইরাসজনিত সংক্রমণের চিকিৎসার জন্য উপকারী। আদার অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল এবং অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি বৈশিষ্ট্যগুলো সাধারণ সর্দি, ফ্লু এবং বিভিন্ন সংক্রামক রোগের চিকিৎসায় সহায়তা করে। রসুন একটি শক্তিশালী মশলা যা— ব্যাকটেরিয়া, ছত্রাক এবং ভাইরাসজনিত সংক্রমণ থেকে রক্ষা করতে সহায়তা করে। মধুতে আছে অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল এবং অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল বৈশিষ্ট্য। যা সংক্রমণ রোধ করে।

ঠান্ডা লাগা এবং ফ্লু প্রতিরোধ
আবহাওয়ার পরিবর্তনের কারণে কিংবা অন্য কোনো কারণে লাগা ঠান্ডা এবং ফ্লু প্রতিরোধ করে আদা। কারণ আদাতে আছে বায়োঅ্যাকটিভ যৌগ, যা অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি এবং অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল বৈশিষ্ট্যযুক্ত। এটি তীব্র গলা ব্যথা কমাতে সহায়তা করে এবং নির্দিষ্ট কিছু অণুজীবকেও বাধা দেয়। রসুন এবং মধুর অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল ও অ্যান্টিভাইরাল বৈশিষ্ট্যের কারণে সাধারণ ঠান্ডা লাগা থেকে মুক্তি দেয়।

হজমের সমস্যা থেকে মুক্তি
হজমের সমস্যা আছে অনেকেরই। কিছু খেলেই পেট ফুলে থাকে; এমন কথা হরহামেশাই শোনা যায়। হজমের সমস্যা থেকে মুক্তি দেয় আদা, রসুন এবং মধুর সংমিশ্রণ পেটের বদহজম, অম্বল, পেটে ব্যথা, ফোলাভাব এবং গ্যাস সহ হজম সংক্রান্ত সমস্যা থেকে মুক্তি দিতে পারে। খাবারের আগে এই মিশ্রণটি পান করলে পেটের অন্যান্য সমস্যাগুলোও সমাধানে সহায়তা করবে।

হার্ট থাকবে ভালো
হার্ট ভালো রাখার জন্য নিয়মিত আদা, রসুন ও মধু কুসুম গরম পানির সঙ্গে মিশিয়ে খেতে হবে। আদা রক্তচাপ হ্রাস করতে পারে। ফলে হৃদরোগের ঝুঁকি কমে। গবেষণায় প্রমাণিত— রসুন এবং মধু উভয়ই উচ্চ রক্তচাপের মাত্রা কমানোর ক্ষমতা রাখে।

হাঁপানি কমায়
হালকা কুসুম গরম পানির সঙ্গে আদা, রসুন এবং মধুর মিশ্রণ হাঁপানি কমায়। গবেষণা বলছে, আদা হাঁপানি উপসর্গ কমাতে সহায়তা করে। রসুন এবং মধুতেও অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি বৈশিষ্ট্য আছে, তাই এগুলোও হাঁপানির লক্ষণ কমাতে সহায়তা করে।

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়
নিয়মিত আদা, রসুন এবং মধু গরম পানিতে মিশিয়ে খেলে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে। শরীরের প্রতিরোধ ক্ষমতা শক্তিশালী করতে সহায়তা করে। এতে অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল, অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি, অ্যান্টিভাইরাল এবং অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল বৈশিষ্ট্যগুলো থাকায় অক্সিডেটিভ স্ট্রেসের বিরুদ্ধে লড়াই করে এবং শরীরকে সুরক্ষিত রাখে।

ক্যানসার প্রতিরোধ
মধু ফ্ল্যাভোনয়েড সমৃদ্ধ। ক্যানসার বিরোধী। গবেষণা বলছে, ক্যানসার প্রতিরোধ ও চিকিৎসায় আদা ও রসুনের ক্ষমতা অনেক।

Show More

আরো সংবাদ...

Back to top button